kalerkantho


সংসার করবে না স্ত্রী

ক্ষোভে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে নিজের শরীরে আগুন দিলেন জামাই

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মাদকাসক্ত স্বামীর সঙ্গে স্ত্রী সংসার করতে চান না। তাঁকে পেতে শ্বশুরবাড়ি গিয়ে স্ত্রীর সামনে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন দিয়েছেন স্বামী। এ ঘটনা ঘটেছে গতকাল রবিবার সকাল ১১টায় মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগর উপজেলার বালাশুর গ্রামে।

মারাত্মক আহত রিয়াদ খানকে (৩০) ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। রিয়াদের শ্বশুর রাঢ়িখাল ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হাসু মোল্লা শ্রীনগর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন।

হাসু মোল্লা জানান, চার বছর আগে ভাগ্যকুলের ফিরোজ খানের ছেলে ঢাকার ব্যবসায়ী রিয়াদ খানের সঙ্গে তাঁর মেয়ে ইয়াসমিন সুলতানা মলির (২২) বিয়ে হয়। তাঁদের সংসারে তিন বছরের একটি ছেলে রয়েছে। রিয়াদ মাদকাসক্ত। এ কারণে তাঁর মেয়ের সঙ্গে প্রায় সময় পারিবারিক কলহ লেগে থাকত। দুই মাস আগে মলি তাঁর বাবার বাড়িতে চলে আসেন এবং রিয়াদের সঙ্গে সংসার করবে না বলে জানায়। গতকাল সকালে মলি তাঁদের বাড়িতে একা ছিল।

এ সুযোগে রিয়াদ কোমল পানীয়ের বোতলে কেরোসিন নিয়ে ওই বাড়িতে প্রবেশ করেন। মলির সামনে নিজের গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেন। এ সময় মলির চিত্কারে আশপাশের লোকজন এসে আগুন নিভিয়ে ফেলে। আগুনে রিয়াদের শরীরের নিম্নাংশ পুড়ে যায়। মলির শরীরেরও কিছু অংশ পুড়ে গেছে। সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, বাড়ির ভবনের কয়েক স্থানে আগুনের চিহ্ন রয়েছে।

হাসু মোল্লা আরো জানান, রিয়াদ এর আগে ধানমণ্ডির বাসায় হারপিক পান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় তিনি ১৫ দিন হাসপাতালে ছিলেন। বালাশুর চৌরাস্তায় রিয়াদের বহুতল মার্কেট নিমাণের কাজ চলছে। এ কারণে তিনি প্রায়ই ঢাকা থেকে বালাশুর চলে আসতেন। কারণে অকারণে তাঁর মেয়েকে জ্বালাতন করতেন। এত কিছুর পরও তিনি রিয়াদের আত্মীয়স্বজনের আশ্বাসের অপেক্ষায় ছিলেন। তাঁর চাচাতো বোনের জামাই কাজী শাহাদাত ভাগ্যকুল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান। তাঁর দাদা বারী খান ও দুই চাচা লিয়াকত খান ও একুল খান সাবেক চেয়ারম্যান। প্রভাবশালী পরিবারের সন্তান হওয়ায় তাঁর বিরুদ্ধে মলি ও তাঁর পরিবারের লোকজন মুখ খুলতে সাহস পাচ্ছিল না। কোনো উপায় না দেখে মেয়ের বাবা থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। তবে রিয়াদের পরিবারের কারো বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

শ্রীনগর থানার ওসি সাহিদুর রহমান বলেন, ‘একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ’


মন্তব্য