kalerkantho


৬৮টি আইএসপি-সাইবার ক্যাফের লাইসেন্স বাতিল

আইনি ব্যবস্থা নেবে বিটিআরসি

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



মেয়াদ শেষ হওয়ার পরও যেসব ইন্টারনেট সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান (আইএসপি) লাইসেন্স নবায়নের জন্য আবেদন করেনি, তাদের কার্যক্রম অবৈধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)। এসব প্রতিষ্ঠান সাইবার ক্যাফেও পরিচালনা করত।

বিটিআরসি প্রতিষ্ঠানগুলোর কার্যক্রম বন্ধ, লাইসেন্স বাতিল ও তাদের এক মাসের মধ্যে বকেয়া পাওনা পরিশোধের জন্য নির্দেশ দিয়েছে। গতকাল বুধবার কমিশন থেকে পাঠানো এক বিজ্ঞপ্তিতে অবৈধ সেবাদাতা এসব প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে টেলিযোগাযোগ আইনে ব্যবস্থা নেওয়ার কথাও জানানো হয়।

কমিশনের লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগের পরিচালক (লাইসেন্সিং) এম এ তালেব হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ‘বিটিআরসি হতে ইস্যুকৃত লাইসেন্স মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ার আগেই নবায়নের আবেদন করার বিধান রয়েছে। সুতরাং উক্ত মেয়াদোত্তীর্ণ লাইসেন্সসমূহের অধীনে সব কার্যক্রম সম্পাদন করা হবে অবৈধ এবং বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন ২০০১ এর অধীন শাস্তিযোগ্য অপরাধ। ’

বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, ‘কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী মেয়াদোত্তীর্ণ আইএসপি ইনক্লুডিং সাইবার ক্যাফে লাইসেন্সধারী প্রতিষ্ঠানসমূহের আর কোনো বৈধতা নেই। ফলে তাদের অনুকূলে ইস্যুকৃত লাইসেন্স বাতিল করা হল। উক্ত প্রতিষ্ঠানসমূহকে সব ধরনের আইএসপি সংক্রান্ত কার্যক্রম বন্ধ করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হল এবং একই সঙ্গে প্রতিষ্ঠানসমূহের নিকট কমিশনের সকল পাওনা বকেয়া আগামী এক মাসের মধ্যে পরিশোধের জন্য বলা হল। অন্যথায় সংস্থা/প্রতিষ্ঠানসমূহের বিরুদ্ধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন ২০০১ এবং পাবলিক ডিমান্ড রিকভারি অ্যাক্ট ১৯১৩ এর বিধান মোতাবেক মামলাসহ প্রয়াজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। ’ বিটিআরসির ওয়েবসাইটে বাতিলকৃত প্রতিষ্ঠানের তালিকাও প্রকাশ করা হয়েছে। এ তালিকার তথ্য অনুসারে, মোট ৬৮টি প্রতিষ্ঠানের লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে।


মন্তব্য