kalerkantho


ভালুকায় ছাত্রী ধর্ষণ

মামলা তুলে নিতে হুমকি

ভালুকা (ময়মনসিংহ) প্রতিনিধি   

১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ০০:০০



ময়মনসিংহের ভালুকায় স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ মামলার বাদীকে বিভিন্ন হুমকিধমকি দিচ্ছে আসামিপক্ষের লোকজন। এতে বাদীপক্ষ আতঙ্কিত।

ঘটনাটি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও থানা-পুলিশকে জানানো হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে লোকজনসহ ভালুকা প্রেস ক্লাবে এসে স্থানীয় সংবাদকর্মীদের এ কথা জানান ওই ছাত্রীর মা।

থানার পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, ভালুকা উপজেলার উথুরা ইউনিয়নের ধলিকুড়ি আশ্রয়ণ প্রকল্পের লাল মিয়ার ছেলে ভ্যানচালক মোখলেছুর রহমান (৩৫) গত ২২ জানুয়ারি দাবা খেলায় জেতার কথা বলে স্থানীয় অনেককেই রসগজা (মিষ্টি জাতীয় খাদ্য) খাওয়ায়। পরে মোখলেছ পূর্বপরিকল্পনা মতে, রসগজার সঙ্গে নেশাজাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে কৌশলে ওই ছাত্রী ও তার নানিকে খাওয়ায়। এতে নেশাগ্রস্ত অবস্থায় নানি-নাতনি নানির ঘরে ঘুমিয়ে পড়ে। এ সময় নাতনিকে (স্কুল ছাত্রী) ধর্ষণ করে মোখলেছুুর রহমান। পরে পরিবারের লোকজন টের পেয়ে মেয়েটিকে ভালুকা ৫০ শয্যার হাসপাতালে নিয়ে এলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ময়মনসিংহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠান। মেয়েটি ওই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঘটনার পরের দিন ওই আশ্রয়ণ প্রকল্পের সভাপতি আবুল কালাম ঘটনাটি লিখিতভাবে ইউএনওকে জানান।

সে সময়ই বিষয়টি ধামাচাপা দিতে উঠেপড়ে লাগেন স্থানীয় এক ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য। পরে ২৬ জানুয়ারি মেয়েটির মা বাদী হয়ে মোখলেছুর রহমানকে আসামি করে ভালুকা মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা করেন।

মামলার বাদী গতকাল ভালুকা প্রেস ক্লাবে সাংবাদিকদের জানান, মামলা করার পর থেকেই আসামিপক্ষ টাকার জোরে তাঁদের (মামলার বাদী) বিভিন্নভাবে হুমকিধমকি দিয়ে আসছে। তারা বলছে, মামলা তুলে না নিলে বাদীপক্ষের সমস্যা হবে। এতে বাদীপক্ষ আতঙ্কিত।


মন্তব্য