kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভুয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদে পুলিশে চাকরি

পাবনায় গ্রেপ্তার ৫ চলছে তদন্ত

পাবনা প্রতিনিধি   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



পুলিশে লোক নিয়োগকে কেন্দ্র করে একটি প্রতারকচক্র লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সনদ দাখিলসহ নানাভাবে পুলিশে অযোগ্যদের চাকরি পাইয়ে দেওয়ার চুক্তিতে চক্রটি এ টাকা হাতিয়ে নেয় বলে নিশ্চিত হয়েছেন জেলা পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

গতকাল মঙ্গলবার পাবনার ভাঙ্গুড়া থেকে পুলিশের কনস্টেবল পদে নিয়োগের প্রাথমিক সিলেকশনে নির্বাচিত হওয়া পাঁচ যুবককে গ্রেপ্তারের পর এ তথ্য পাওয়া গেছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

পাবনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সিদ্দিকুর রহমান জানান, গত ২৫ সেপ্টেম্বর পুলিশের কনস্টেবল পদে লোক নিয়োগ করা হয়। এ সময় ভাঙ্গুড়া উপজেলার গোবিন্দপুর গ্রামের রবিউল করিম, জেল হক, আমিরুল ইসলাম, আতিকুর রহমান ও গোপালপুর গ্রামের রহমত উল্লাহ মুক্তিযোদ্ধা সনদ জমা দিয়ে মুক্তিযোদ্ধা কোটায় চাকরির আবেদন করে। তদন্তে ওই সনদ ভুয়া প্রমাণিত হওয়ায় জেলা পুলিশের একটি দল গতকাল সকালে অভিযুক্তদের নিজ নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে।

সদর থানার ওসি (তদন্ত) মুন্সী আবু কুদ্দুস গতকাল দুপুরে জানান, গ্রেপ্তার পাঁচজনকে থানায় আনার পর পাবনা জেলা পুলিশের রিজার্ভ অফিসার (আরও) বাদী হয়ে মামলা করবেন। পরে তাদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হবে। ওই পাঁচজনের বাবাকেও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় আনা হবে।

পাবনার পুলিশ সুপার আলমগীর কবীর জানান, প্রাথমিকভাবে পুলিশ নিশ্চিত হয়েছে, গ্রেপ্তারকৃতরা ২০ থেকে ৫০ হাজার টাকা করে দিয়েছে ওই চক্রকে। চাকরি নিশ্চিত হওয়ার পর তারা প্রত্যেকে ছয় লাখ করে টাকা দেবে বলে চক্রটির সঙ্গে চুক্তি হয়। তবে এখনো ওই সিন্ডিকেটের কারো পরিচয় নিশ্চিত হতে পারেনি পুলিশ। এ বিষয়ে ব্যাপক তদন্ত করা হচ্ছে। তদন্ত শেষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য