kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রদলের প্রথম কমিটি

অছাত্ররা নেতৃত্বে

রাসেল মাহমুদ, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম ব্যাচের শিক্ষার্থী নুরুল আলম চৌধুরী নোমানকে সভাপতি ও দ্বিতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী মো. নাছির উদ্দীনকে সাধারণ সম্পাদক করে গত বৃহস্পতিবার রাতে ঘোষণা করা হয়েছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় শাখার কমিটি। এ ছাড়া সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়েছে তৃতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী মোস্তাফিজুর রহমান শুভকে।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে ছাত্রদলের এটাই প্রথম কমিটি।

এদিকে ঘোষিত কমিটির শীর্ষ দুই পদসহ একাধিক পদে স্থান পেয়েছেন অছাত্ররা। আটজন সহসভাপতির কমপক্ষে চারজনের ছাত্রত্ব শেষ হয়েছে দেড় থেকে দুই বছর আগে। অন্য চারজনেরও ছাত্রত্ব শেষ হয়েছে প্রায় এক বছর আগে। প্রথম যুগ্ম সম্পাদক পদ পাওয়া আশরাফুজ্জামান নোমান কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী না হয়েও আছেন কমিটিতে। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের সান্ধ্য কোর্সের শিক্ষার্থী বলে জানা যায়। এ ছাড়া পদবঞ্চিত হয়েছেন একাধিক যোগ্য নেতা। যোগ্য ও ত্যাগী নেতাদের মূল্যায়ন করা হয়নি বলেও গুঞ্জন রয়েছে।

ক্যাম্পাস সূত্রে জানা যায়, সভাপতি পদ পাওয়া নুরুল আলম চৌধুরী নোমান ২০০৬-০৭ শিক্ষাবর্ষে বিশ্ববিদ্যালয়ের মার্কেটিং বিভাগে ভর্তি হন। প্রায় চার বছর আগে তাঁর ছাত্রত্ব শেষ হয়। তবে তিনি সান্ধ্য কোর্সে ইংলিশে এমএ করছেন বলে জানান নোমান। দীর্ঘদিন বিশ্ববিদ্যালয়ে না থাকায় নেতাকর্মীদের সঙ্গে তাঁর দূরত্ব রয়েছে। এ ছাড়া জুনিয়র কর্মীদের অনেকেই নোমানকে চেনেন না।

সাধারণ সম্পাদক পদ পাওয়া মো. নাছির উদ্দীন বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০০৭-০৮ শিক্ষাবর্ষে লোকপ্রশাসন বিভাগে ভর্তি হন। প্রায় দেড় বছর আগে তাঁর ছাত্রত্ব শেষ হয়েছে বলে একাধিক সূত্র নিশ্চিত করেছে। আগে দলীয় বিভিন্ন কর্মসূচিতে নাছিরকে দেখা গেলেও গত এক বছর তিনি ক্যাম্পাসে নেই। সিনিয়র সহসভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন ও সহসভাপতি ই এম সাজিদ আলমকে মূল্যয়ন করা হয়নি বলেও অভিযোগ উঠেছে। ক্যাম্পাস ছাত্রদলের একাধিক কর্মী নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মামুন ও সাজিদ শীর্ষ দুই পদের জন্যই যোগ্য। ছাত্রদলের দুঃসময়ে তাঁরা কর্মীদের আগলে রেখেছেন। তাঁরাই কেন্দ্র ঘোষিত সব কর্মসূচি পালন করতেন। এ দুজন সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক হলে সংগঠনের জন্য ভালো হতো।

এর আগে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল কেন্দ্রীয় সংসদের দপ্তর সম্পাদক মো. আবদুস সাত্তার পাটোয়ারী বলেছিলেন, নিয়মিত শিক্ষার্থী এবং যোগ্য ও ত্যাগীদের দিয়েই কমিটি ঘোষণা করা হবে। তবে শেষ পর্যন্ত তা হয়নি।

শাবিপ্রবিতে ছাত্রদলের নতুন কমিটি

 এদিকে শাবিপ্রবি প্রতিনিধি জানান, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রদলের নতুন কমিটি বৃহস্পতিবার রাতে ঘোষণা করা হয়েছে। গণমাধ্যমে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, ঘোষিত কমিটিতে সভাপতি এবং সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন যথাক্রমে এম এ রাকিব ও আসাদ খান সাদী।

১৬ সদস্যের কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন সিনিয়র সহসভাপতি শাহাদাত হোসেন টিপু, সহসভাপতি ফখরুল ইসলাম ও অনুপ দে, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সুয়েব খান, সারোয়ার জাহান, মিজানুর রহমান মৃদুল, হোসাইন আহমেদ রিয়াদ, মাসুম বিল্লাহ ও শাকিল মাহমুদ, সাংগঠনিক সম্পাদক হাবিব মেহেদী, সহসাধারণ সম্পাদক নুরুল হক, প্রচার সম্পাদক আবির হোসেন রাফি ও দপ্তর সম্পাদক মনির হোসেন। শাবি ছাত্রদলের সভাপতি এম এ রাকিব বলেন, শিগগিরই পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা করা হবে।


মন্তব্য