kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সরাইলে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ডাকাত নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলে গত বুধবার রাতে গ্রেপ্তার হওয়া সাত ডাকাতের একজন পুলিশের সঙ্গে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার রাতে বন্দুকযুদ্ধে নিহত ওই ডাকাত হলো উপজেলার চুন্টা ইউনিয়নের রসুলপুর গ্রামের মীর হোসেনের ছেলে মানিক মিয়া (৩৬) ওরফে হাত ভাঙা মানিক্কা।

শুক্রবার ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সদর হাসপাতালে তার লাশের ময়নাতদন্ত শেষ হয়েছে।

পুলিশের দাবি, মানিককে নিয়ে অস্ত্র উদ্ধার ও অন্য আসামিদের ধরতে অভিযান চালানো হলে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। এতে এসআই, এসএসআইসহ চার পুলিশ সদস্য আহত হন। মানিকের বিরুদ্ধে ডাকাতিসহ বিভিন্ন অভিযোগে কমপক্ষে আটটি মামলা রয়েছে।

পুলিশের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, গত বুধবার রাতে ডাকাতির উদ্দেশ্যে একটি দল নৌকা নিয়ে যাচ্ছিল। এ সময় সরাইলের অরুয়াইল ও পাকশিমূল এলাকায় তিতাস নদীতে টহলরত পুলিশ তাদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে ডাকাতদল পুলিশের ওপর গুলি ছোড়ে। পুলিশ ২৪ রাউন্ড গুলি ছোড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় মানিকসহ সাত ডাকাতকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। তাদের বিরুদ্ধে সরাইল থানায় মামলা করা হয়।

পুলিশ আরো জানায়, মানিককে নিয়ে বৃহস্পতিবার রাতে অস্ত্র উদ্ধার ও ডাকাতির ঘটনায় জড়িত আসামিদের গ্রেপ্তারে অভিযান চালানো হয়। একপর্যায়ে সরাইল-অরুয়াইল সড়কের ব্রাহ্মণগাঁও এলাকায় পুলিশের ওপর হামলা হয়। এ সময় হামলাকারী ডাকাতদল পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে মানিককে ছিনিয়ে নেয়। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। গোলাগুলির একপর্যায়ে পুলিশ ডাকাত মানিককে পড়ে থাকতে দেখে। এ ঘটনায় পুলিশের এসআই আব্দুল আলীম, এএসআই আমজাদ, কনস্টেবল নজরুল ও ফারুক আহত হন। তাদের সরাইল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য