kalerkantho


দেবীদ্বারে যুবক খুন, বই বিক্রেতার লাশ বরুড়ায়

আশুগঞ্জে ডোবায় অজ্ঞাতপরিচয় মরদেহ

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

১২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



কুমিল্লার দেবীদ্বারে ছুরিকাঘাতে খুন হয়েছেন এক যুবক। একই জেলার বরুড়ায় পুকুর থেকে বই বিক্রেতার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। অন্যদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আশুগঞ্জে ডোবায় পাওয়া গেছে অজ্ঞাতপরিচয় একজনের মরদেহ।

কুমিল্লা : কুমিল্লার দেবীদ্বার উপজেলার ছোটনা গ্রামে ছুরিকাঘাতে ফয়েজ নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। এ সময় আহত হয়েছে আরো তিনজন। সোমবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। নিহত ফয়েজ দেবীদ্বার উপজেলার মোহনপুর গ্রামের জয়নাল আবেদীনের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, হিন্দু সম্প্রদায়ের দুর্গোৎসব চলাকালে ছোটনা গ্রামের একটি পূজামণ্ডপের পাশে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে ফয়েজের সঙ্গে স্থানীয় কয়েকজন যুবকের কথাকাটাকাটি হয়। একপর্যায়ে ফয়েজকে তারা ছুরিকাঘাত করে। পরে তাঁকে বাঁচাতে এসে উপজেলার মোহনপুর গ্রামের মেহেদী হাসান, গনি মিয়া ও রাসেল আহত হয়। পরে স্থানীয়রা গুরুতর আহত ফয়েজকে উদ্ধার করে প্রথমে দেবীদ্বার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে তাঁকে কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। কিন্তু অবস্থার আরো অবনতি হওয়ায় ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়ার পথে গভীর রাতে তাঁর মৃত্যু হয়। দেবীদ্বার থানার ওসি মো. মিজানুর রহমান জানান, এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে পূজার কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই। তুচ্ছ বিষয় নিয়ে বাগিবতণ্ডার কারণে ছুরিকাঘাতে ফয়েজের মৃত্যু হয়। এদিকে বরুড়া উপজেলায় নিজ বাড়ির পুকুর থেকে আক্তারুজ্জামান নামের এক বই বিক্রেতার লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে উপজেলার বড় লক্ষ্মীপুর গ্রামের ওই পুকুর থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়। আক্তারুজ্জামান স্থানীয় বাজারে বই বিক্রি করতেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া : আশুগঞ্জ উপজেলার বায়েক গ্রামের একটি ডোবা থেকে গত সোমবার বিকেলে অজ্ঞাতপরিচয় এক ব্যক্তির (৪৫) লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আশুগঞ্জ থানার ওসি মো. সেলিম উদ্দিন জানান, ওই ব্যক্তি এক সপ্তাহ ধরে লালপুর এলাকায় ঘোরাঘুরি করছিলেন বলে স্থানীয়রা জানিয়েছে। তাঁর শরীরে কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ওই ব্যক্তির পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে বলেও জানান ওসি।


মন্তব্য