kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।

আত্মহনন

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

১০ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের রৌদ্রপাড়া গ্রামে আফসার মৃধা নামের এক ব্যক্তি আত্মহত্যা করেছেন। খবর পেয়ে গতকাল রবিবার তাঁর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মুন্সীগঞ্জ মর্গে পাঠিয়েছে পুলিশ।

পরিবার ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, আফসার মৃধার তিন ছেলের মধ্যে বড় ছেলে থাকেন মানিকগঞ্জে। মেজ ছেলেও  তাঁর পরিবার নিয়ে আলাদা থাকেন। জমি বিক্রি ও সুদের সাড়ে তিন লাখ টাকা দিয়ে দেড় বছর আগে ছোট ছেলে শুকুর মৃধাকে ওমানে পাঠিয়েছিলেন তিনি। দালালচক্রের খপ্পরে পরে সেখানে গিয়ে কোনো ভালো কাজ জোগাতে পারেননি শুকুর। উল্টো খেয়েপরে তাঁর নিজের বেঁচে থাকাই দায় হয়ে পড়ে। এদিকে ছেলে দেশে টাকা পাঠাতে না পারায় আফসারের ওপর সুদের টাকার বোঝা বাড়তে থাকে। এর মধ্যে কাগজপত্র বৈধ না থাকায় কয়েক দিন আগে পুলিশের হাতে ধরা পড়েন শুকুর। বাড়িতে ফোন করে শুকুর জানান, তাঁর কাছে ২৫ হাজার টাকা পাঠালে দেশে ফিরতে পারবেন। এ খবর শুনে আফসার প্রথমে মুষড়ে পড়লেও পরে নিজের শ্যালককে অনুরোধ করেন ওই টাকা জোগাড় করে দিতে। টাকা আনতে স্ত্রীকে শনিবার বিকেলে তিনি শ্বশুরবাড়িতে পাঠান। টাকা নিয়ে পরদিন রবিবার সকাল ৮টার দিকে বাড়িতে ফিরে ঘরের দরজা বন্ধ দেখতে পান আফসারের স্ত্রী। পরে প্রতিবেশীদের সহায়তায় দরজা ভেঙে দেখেন ঘরের আড়ার সঙ্গে তাঁর স্বামীর লাশ ঝুলছে। খবর পেয়ে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। এদিকে ওই টাকা ওমানে শুকুরের কাছে পাঠানো হয়েছে। গতকাল রাতেই তাঁর দেশে ফেরার কথা রয়েছে। তবে বাবার আত্মহত্যার খবর তাঁকে জানানো হয়নি।


মন্তব্য