kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


টঙ্গিবাড়ীতে ধর্ষণচেষ্টা

রাতে সালিস দিনে মামলা

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



মুন্সীগঞ্জের টঙ্গিবাড়ী উপজেলায় দ্বিতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে (৭) ধর্ষণচেষ্টার পর গত শুক্রবার রাতে সালিস বসে। বিচার না মেনে মেয়ের বাবা পরদিন গতকাল শনিবার দুপুরে টঙ্গিবাড়ী থানায় মামলা করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার সকাল ৯টার দিকে ওই মাদ্রাসা ছাত্রী স্থানীয় আলেক শাইয়ের বাড়িতে আমড়া কুড়ানোর জন্য যাচ্ছিল। পথে মুদি দোকান মালিক তোতা মিয়া সেখ (৫৫) এবং তার সহযোগী জব্বার সর্দার (৪৫) মেয়েটির মুখ চেপে ধরে দোকানে নিয়ে ঝাঁপ বন্ধ করে নির্যাতনের চেষ্টা চালায়। এ সময় মেয়েটি চিত্কার করলে ফারুকসহ কয়েকজন যুবক দোকানে ঢুকে মেয়েটিকে উদ্ধার করে। পরে এ নিয়ে রাতে সালিস বসে। আইয়ুব মাদবর, চুন্নু মাদবর, রেজ্জাক ঢালী, খোরশেদ মাস্টার, রশিদ ঢালীসহ ১৫ জন জুড়ি ভোটের মাধ্যমে তোতা মিয়াকে ১৫টি এবং জব্বার সর্দারকে ১০টি বেত্রাঘাত করেন। মাতবররা দুই অভিযুক্তের কাছ থেকে পাঁচ হাজার টাকা জরিমানা নিয়ে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের দেওয়ার কথা বলেন। এ রায় মেনে না নিয়ে মেয়ের বাবা কৌশলে ঘটনাস্থল ত্যাগ করেন।

সালিস বিষয়ে খোরশেদ মাদবর সঠিক কোনো ব্যাখ্যা দিতে পারেননি।

টঙ্গিবাড়ী থানার ওসি আলমগীর হোসাইন বলেন, ‘তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’


মন্তব্য