kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কুমিল্লা সিটি করপোরেশন

পরিধি বাড়ছে তিন গুণ

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের পরিধি বাড়িয়ে তিনগুণ করা হচ্ছে। মাস্টার প্ল্যান অনুযায়ী বর্তমান পরিধি ৫৩ দশমিক ০৪ বর্গ কিলোমিটার থেকে বাড়িয়ে ১৫০ বর্গ কিলোমিটার করার একটি প্রস্তাব করা হয়েছে সিটি করপোরেশনের ৩৯তম মাসিক সাধারণ সভায়।

গত সোমবার প্রস্তাবটি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছেন সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী শেখ মো. নুরুল্লাহ।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী (ভারপ্রাপ্ত) মো. সফিকুল ইসলাম ভূইয়া জানান, সরকার ২০১১ সালের ১০ জুলাই কুমিল্লা পৌরসভা ও কুমিল্লা সদর দক্ষিণ পৌরসভা একীভূত করে ৫৩ দশমিক ০৪ বর্গ কিলোমিটার আয়তনের ২৭টি ওয়ার্ড নিয়ে

কুমিল্লা সিটি করপোরেশন প্রতিষ্ঠা করে। পরে সিটি করপোরেশন ও স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের সহায়তায় মাস্টার প্ল্যান প্রণয়ন করা হয়। সেই মাস্টার প্ল্যানের অংশ হিসেবে মাসিক সাধারণ সভায় সিটি করপোরেশনের পরিধি বাড়িয়ে ১৫০ বর্গ কিলোমিটার করার প্রস্তাব করা হয়েছে।

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র মনিরুল হক সাক্কু বলেন, সিটি করপোরেশনের বিভিন্ন প্রকল্প সুষ্ঠু ও নিবিড়ভাবে বাস্তবায়নে ভৌগোলিক অবস্থানগত কারণে পাশের এলাকাগুলো সম্পৃক্ত। ফলে সিটি করপোরেশনের সামগ্রিক উন্নয়নের স্বার্থে এলাকা সম্প্রসারণ জরুরি।

এ ব্যাপারে কাউন্সিলর মো. সেলিম খান জানান, সিটি করপোরেশনের সেবা বাড়ানোর জন্য বিদ্যমান সীমানাসংলগ্ন পার্শ্ববর্তী ইউনিয়নগুলোর গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলো অন্তর্ভুক্ত করে পরিধি বাড়ানো অপরিহার্য। দূরদর্শী ও দীর্ঘমেয়াদি কর্মপরিকল্পনা বাস্তবায়নের বিকল্প নেই।

অন্য কাউন্সিলর মো. জমিরউদ্দিন খান জম্পী জানান, সিটি করপোরেশনের পাশের বেশির ভাগ এলাকা জনবসতি, অবকাঠামো, সামাজিক, অর্থনৈতিক ও বাণিজ্যিকভাবে সমৃদ্ধ। এ অঞ্চলের অধিবাসীরা বহুদিন ধরেই নগরজীবনে অভ্যস্ত এবং প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সিটি করপোরেশনের সেবা ভোগ করছে। সিটি করপোরেশনের রাজস্ব বাড়াতে এলাকা সম্প্রসারণ উল্লেখযোগ্য ভূমিকা রাখবে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।


মন্তব্য