kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


জয়পুরহাটে শিক্ষক লাঞ্ছিত

আন্দোলনের হুমকি শিক্ষক সমিতির

জয়পুরহাট প্রতিনিধি   

৮ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



জয়পুরহাট পৌর এলাকার খঞ্জনপুর মিশন বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষককে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি ও তাঁর লোকজন লাঞ্ছিত করেছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে জয়পুরহাট প্রেস ক্লাবে শিক্ষক সমিতি আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করা হয়।

এ সময় শিক্ষক সমিতি হুমকি দিয়ে বলেছে, ম্যানেজিং কমিটির ওই সভাপতির বিচার না হলে বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে প্রধান শিক্ষক বিনয় কৃষ্ণ মণ্ডল বলেন, বুধবার সকালে বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আব্দুস সোবহান লোকজন নিয়ে বিদ্যালয়ে এসে তাঁকে প্রধান শিক্ষকের পদ থেকে বরখাস্ত করার চিঠি নিতে বলেন। এ সময় তিনি বলেন, কমিটির কোনো সভা-রেগুলেশন ছাড়া তাঁকে বরখাস্ত করার এ আদেশ ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি দিতে পারেন না। তিনি তখন ওই চিঠি নিতে অস্বীকৃতি জানান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আব্দুস সোবহান ও তাঁর লোকজন তাঁকে লাঞ্ছিত করে। এ সময় প্রধান শিক্ষকের স্ত্রী বিদ্যালয়ের সহকারী গ্রন্থাগারিক শাপলা বসাক এগিয়ে এলে তাঁকেও লাঞ্ছিত করা হয়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় বিদ্যালয়ে স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাহেদুল আহসান সোহেলসহ শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান শিক্ষক আরো অভিযোগ করেন, কমিটির সভাপতি আব্দুস সোবহান অনিয়মতান্ত্রিকভাবে ম্যানেজিং কমিটি গঠন করে তাঁকে আবারও সভাপতি করার পাশাপাশি চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারী নিয়োগে নানাভাবে চাপ সৃষ্টি করেন।

সংবাদ সম্মেলনে আরো বক্তব্য দেন জেলা শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আফজাল হোসেন, জেলা শিক্ষক সমিতির (সেলিম ভূইয়া) সভাপতি আবু বক্কর সিদ্দিক ও ওয়ার্ড কাউন্সিলর সাহেদুল আহসান সোহেল। তা ছাড়া জেলার বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় শিক্ষক নেতারা এ ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে বৃহত্তর আন্দোলন কর্মসূচির হুমকি দেন।

এদিকে এ ঘটনায় প্রধান শিক্ষক বিনয় কৃষ্ণ মণ্ডল ও তাঁর স্ত্রী শাপলা বসাক সদর থানায় পৃথক দুটি অভিযোগ করেছেন।


মন্তব্য