kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মেহেরপুরে শ্রমিকের মৃত্যুতে হাসপাতাল ভাঙচুর

মেহেরপুর প্রতিনিধি   

৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



মেহেরপুরে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যুর ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজিত জনতা হাসপাতালে ভাঙচুর করেছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে ওই ঘটনা ঘটে।

নিহত হাবিবুর রহমান মেহেরপুর শহরের চক্রপাড়ার হেব্বত আলীর ছেলে।

এদিকে এ ঘটনার পর জরুরি বিভাগে চিকিৎসা কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে। খবর পেয়ে মেহেরপুর জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ হাসপাতাল পরিদর্শন করেছেন।

স্থানীয়রা জানায়, মেহেরপুর পুলিশ সুপারের কার্যালয়ের সামনের একটি বাড়িতে কাজ করতে গিয়ে বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হন হাবিবুর রহমান। তাঁকে দ্রুত মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসক লিপু সুলতান পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে স্বজনরা লাশ বাড়ি নিয়ে গেলে হাবিবুরের শরীর একটু নড়ে ওঠে। তখন তাঁকে আবার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ সময় তাদের সঙ্গে স্থানীয় উত্তেজিত জনতাও হাসপাতালে গিয়ে জরুরি বিভাগে ভাঙচুর চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ সিনিয়র চিকিৎসকরা আবারও পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে হাবিবুরকে মৃত ঘোষণা করেন।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক লিপু সুলতান জানান, ওই রোগীকে হাসপাতালে নিয়ে আসার আগেই তাঁর মৃত্যু হয়েছে। এর পরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য ইসিজি করা হয়। তিনি আরো বলেন, বিদ্যুত্স্পৃষ্ট হলে শরীরের পেশিগুলো সংকুচিত হয়ে যায়। অনেক সময় মৃত্যুর পর সেগুলো ছেড়ে দেয়। তখন রোগী নড়ে উঠেছে বলে মনে হয়।

মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মিজানুর রহমান বলেন, সরকারি সম্পদ ভাঙচুরের ঘটনায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি (তদন্ত) মেহেদী হাসান বলেন, পরিস্থিতি বর্তমানে স্বাভাবিক রয়েছে। ভাঙচুরের ঘটনায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ অভিযোগ জানালে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।


মন্তব্য