kalerkantho


মঠবাড়িয়ায় ১৬ বাচ্চাসহ ধরা পড়ল সাপ

২২ ডিম উদ্ধার, আতঙ্ক

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, পিরোজপুর   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



পিরোজপুরের মঠবাড়িয়ার দাউদখালী ইউনিয়নের চালিতাবুনিয়া গ্রামের মো. জাহাঙ্গীর হাওলাদারের বাড়ির বৈঠকখানার মাটি খুঁড়ে ১৬টি বাচ্চাসহ পাঁচ ফুট লম্বা একটি বিষধর সাপ ধরেছে সাপুড়ে। এ সময় মাটি খুঁড়ে সাপের ২২টি ডিম উদ্ধার করা হয়।

সাপের বাচ্চাগুলো এক থেকে দেড় ফুট লম্বা। গত সোমবার সাপুড়ে মো. নুরুল ইসলাম খোকন বাচ্চাসহ সাপ ও ডিম উদ্ধার করেন।

জাহাঙ্গীরের পরিবারের সদস্যরা জানায়, বাড়ির  বৈঠকখানার নিচে গর্তের ভেতর একটি বড় সাপ ঢুকতে দেখেন তারা। গত রবিবার ওই ঘরের চারপাশ জাল দিয়ে ঘেরাও করে সাপুড়েকে খবর দেওয়া হয়। পরে ঝালকাঠির পেশাদার সাপুড়ে মো. নুরুল ইসলাম খোকন গ্রামবাসীর সহায়তায় মাটি খুঁড়ে সাপটি ধরেন। সাপুড়ে মো. নুরুল ইসলাম জানান, সাপের বিষ জাতীয় সম্পদ। তাই সাপ মারা ঠিক নয়।

গৃহকর্তা মাওলানা জাহাঙ্গীর হাওলাদার জানান, দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা সাপ আতঙ্কে ভুগছিলেন। এত সাপ ও সাপের ডিম উদ্ধার হওয়ায় তাঁদের আতঙ্ক আরো বেড়ে গেছে।

উল্লেখ্য, চার দিন আগে জাহাঙ্গীর হাওলাদারের প্রতিবেশী মো. নুরুল হক ফকিরের কলেজ পড়ুয়া মেয়ে ফেরদৌসী আক্তার বিষধর সাপের কামড়ে মারা যায়। রান্নাঘর থেকে কাঠ নামানোর সময় ফেরদৌসীর হাতে কামড় দিয়েছিল সাপ।


মন্তব্য