kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যৌতুক যন্ত্রণা

কুষ্টিয়ায় গৃহবধূকে সিগারেটের ছেঁকা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



কুষ্টিয়ার দৌলতপুর উপজেলার ফিলিপনগর দফাদারপাড়ায় যৌতুকের দাবিতে এক গৃহবধূকে জ্বলন্ত সিগারেটের ছেঁকা দিয়েছে তাঁর পাষণ্ড স্বামী। বর্তমানে নির্যা তিত ওই গৃহবধূ দৌলতপুর উপজেলা স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসাধীন।

প্রায় দেড় বছর আগে এক লাখ টাকা যৌতুক দিয়ে বিপ্লবের সঙ্গে সন্ধ্যার বিয়ে হয়।

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন নির্যা তনের শিকার গৃহবধূ মফা খাতুন ওরফে সন্ধ্যা জানান, কিছুদিন ধরে স্বামী তাঁর কাছে দুই লাখ টাকা যৌতুক চেয়ে আসছিল। কিন্তু তিনি বাবার বাড়ি থেকে ওই টাকা এনে দিতে অপারগতা জানালে গত রবিবার মধ্যরাতে তাঁকে হাত-পা বেেঁধ বেধড়ক মারধর করে তাঁর স্বামী। একপর্যা য়ে শরীরের বিভিন্ন স্থানে জ্বলন্ত সিগারেটের ছেঁকা দেওয়া হয়। পরে সকালে তাঁকে ঘরে আটকে রেখে তাঁর স্বামী পালিয়ে যায়। সকালে বিষয়টি জানাজানি হলে ফিলিপনগর মণ্ডলপাড়ার তাঁর বাবার বাড়ির লোকজন এসে তাঁকে উদ্ধার করে সোমবার সকালে হাসপাতালে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় সন্ধ্যার মা জুলেখা খাতুন বাদী হয়ে মেয়ের জামাই বিপ্লবসহ চারজনের নামে গত সোমবার রাতে দৌলতপুর থানায় অভিযোগ জানায়। কিন্তু এখন পুলিশ বিপ্লবকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি।

দৌলতপুর থানার ওসি মোল্লা মো. খবির আহমেদ বলেন, বিপ্লবকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য