kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কামড়

হাওরাঞ্চল প্রতিনিধি   

৪ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



নেত্রকোনার কেন্দুয়া উপজেলায় গত রবিবার সন্ধ্যায় সপ্তম শ্রেণির এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে (১৩) ধর্ষণে ব্যর্থ হয়ে কামড়িয়ে আহত করেছে এক বখাটে যুবক। আহত মেয়েটিকে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ওই মেয়েকে প্রায় দুই-তিন মাস ধরে দিগলী গ্রামের এখলাস উদ্দিনের ছেলে পলাশ মিয়া (২০) উত্ত্যক্ত করতেন। রবিবার সন্ধ্যার দিকে মেয়েটি মাদ্রাসা থেকে বাড়ি ফিরছিল। পথে ওত পেতে থাকা পলাশ মেয়েটিকে একা পেয়ে টানাহেঁচড়া করেন। যৌন নির্যাতনের চেষ্টা করায় মেয়েটি চিৎকার করে। এতে মেয়েটির হাতের কয়েক স্থানে কামড়িয়ে রক্তাক্ত করেন যুবক। পরে লোকজন ছুটে আসতে দেখে যুবক ঘটনাস্থল থেকে দৌড়ে পালিয়ে যান।

মেয়ের বাবা ইসলাম উদ্দিন বলেন, ‘আমার অপ্রাপ্তবয়স্ক মেয়েকে পলাশ যৌন নির্যাতন করতে না পেরে কামড়িয়ে মারাত্মক জখম করেছে। এখন সে হাসপাতালে ভর্তি। আমি এ ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই। ’

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অভিরঞ্জন দেব ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘মেয়ের বড় ভাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। পলাশকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে। ’


মন্তব্য