kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ঝিনাইগাতী সীমান্তে মরল বুনো হাতি

শেরপুর প্রতিনিধি   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



শেরপুরের ঝিনাইগাতীর কাংশা ইউনিয়নের পানবর গ্রামে গত শনিবার রাতে একটি বন্য হাতি মারা গেছে। রবিবার সকালে ওই গ্রামের পাহাড়ি ঢালে আবাদ করা একটি ধানক্ষেত থেকে হাতিটির মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়।

দুপুরে ময়নাতদন্ত শেষে মৃতদেহটি মাটিচাপা দেওয়া হয়।

বৈদ্যুতিক শক দিয়ে হাতিটি মারা হয়েছে বলে স্থানীয় একটি সূত্রে জানা গেছে। কেউ কেউ আবার বলছে, খাওয়ার সময় গলায় ধানগাছ আটকে হাতিটির মৃত্যু হয়েছে।

এ ব্যাপারে বন বিভাগের ঝিনাইগাতীর তাওয়াকুচা বিট কর্মকর্তা মো. আশরাফুল আলম জানান, মৃত হাতিটির বয়স আনুমানিক ৯-১০ বছর। এটি দাতাল পুরুষ হাতি, উচ্চতা ১২ ফুট এবং লেজসহ লম্বায় ১৩ ফুট। তাৎক্ষণিকভাবে হাতিটির মৃত্যুর কারণ জানা যায়নি। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর প্রকৃত কারণ জানা যাবে। আশরাফুল আলম আরো জানান, উপজেলা প্রাণিসম্পদ অফিসের ভেটেরিনারি সার্জন ডা. ফৌজিয়া কাদের, জেলা বন্যপ্রাণী এবং প্রকৃতি ও জীববৈচিত্র্য সংরক্ষণ কর্মকর্তা মো. কামরুজ্জামান মৃত হাতির ময়নাতদন্ত করেছেন। সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, গত এক বছরে ঝিনাইগাতী ও শ্রীবরদী সীমান্তে এ নিয়ে চারটি বন্য হাতির মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনা ঘটল। একই সময়ে উপজেলা দুটির সীমান্তবর্তী গ্রামে বন্য হাতির আক্রমণে সাতজনের মৃত্যু হয়েছে।


মন্তব্য