kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দিরাই ও সরাইলে সংঘর্ষে আহত ৮০

সুনামগঞ্জ ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০০



সুনামগঞ্জের দিরাই উপজেলার রফিনগর গ্রামে অতিথিকে ঢিল ছোড়ায় দুই পক্ষের মধ্যে দফায় দফায় সংঘর্ষে ২০ জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছে। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত ৪১ জনকে সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

অন্যদের দিরাই উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। গত শুক্রবার রাত থেকে শনিবার সকাল পর্যন্ত এ ঘটনা ঘটে। সংঘর্ষে জড়িত উভয় পক্ষের পাঁচজনকে আটক করেছে পুলিশ। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

এলাকাবাসী জানায়, রফিনগর গ্রামের আলী আকবর ও শাহেদ আলীর লোকজনের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় বিয়েসংক্রান্ত বিষয়ে আলোচনার জন্য হবিগঞ্জ থেকে কয়েকজন অতিথি আলী আকবরের বাড়িতে আসে। অতিথিরা আসার সময় শাহেদ আলীর বাড়ি থেকে কে বা কারা আলী আকবরের বাড়ির দিকে ঢিল ছুড়লে একজন নারী আহত হন। এ নিয়ে কথাকাটাকাটির জের ধরে রাত ৮টার দিকে উভয় পক্ষ নিজেদের লাইসেন্স করা বন্দুকসহ দেশি অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পরদিন শনিবার সকালেও উভয় পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। এ সময় উভয় পক্ষ বাড়িঘরেও হামলা চালায়। সংঘর্ষে ২০ জন গুলিবিদ্ধসহ অন্তত অর্ধশত আহত হয়। দিরাই থানার ওসি মো. আব্দুল জলিল ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সরাইলের হালুয়াপাড়া ও মোঘলটুলা গ্রামবাসীর মধ্যে সংঘর্ষে শনিবার সকালে কমপক্ষে ৩০ জন আহত হয়েছে। এ সময় দুটি বসতঘর ভাঙচুর ও একটি সবজি ক্ষেত নষ্ট করা হয়। পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

জানা গেছে, পাশাপাশি দুই গ্রাম হালুয়াপাড়া ও মোঘলটুলার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিল। বছরখানেক আগে সড়কে মাটি ফেলানোর ঘটনাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এসব বিষয় নিয়ে সম্প্রতি হালুয়াপাড়া গ্রামের নূর আলম জেলা সদরে হামলার শিকার হন। এ নিয়ে মোঘলটুলা গ্রামের মাখন মিয়াকে সরাইলের বিকেল বাজার এলাকায় পাল্টা মারধর করা হয়। এরই জের ধরে শনিবার সকালে উভয় পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। সরাইল থানার ওসি রুপক কুমার সাহা জানান, খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।


মন্তব্য