kalerkantho


শ্রীপুরে বাক্প্রতিবন্ধী তরুণীকে গণধর্ষণ

আঞ্চলিক প্রতিনিধি, গাজীপুর   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



গাজীপুরের শ্রীপুরে বাকপ্রতিবন্ধী এক তরুণীকে গণধর্ষণ করা হয়েছে। গত বুধবার রাতে এ ঘটনার সময় স্থানীয়রা দুজনকে আটক করেছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার পর্যন্ত পুলিশ মেয়েটির পরিচয় শনাক্ত করতে পারেনি।

আটকরা হলো শ্রীপুরের রাজেন্দ্রপুর পূবেরটেক গ্রামের শাহেদ আলীর ছেলে বাদশা মিয়া (২২) ও দক্ষিণ ভাংনাহাটি গুচ্ছগ্রামের নূরুল ইসলামের (মৃত) ছেলে ফারুক মিয়া (৩০)। বাদশা গাজীপুর সদর উপজেলার বাংলাবাজারের ইপিলিয়ন কারখানার শ্রমিকবাহী বাসের চালক ও ফারুক ওই বাসের সহকারী (হেলপার)। এ সময় তাদের দুই সহযোগী পালিয়ে গেছে।

শ্রীপুর মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আবদুস সাত্তার জানান, বুধবার রাত ১১টার দিকে শ্রমিকদের গন্তব্যে নামিয়ে চালক ও হেলপার খালি বাস নিয়ে কারখানায় ফিরছিল। পথে নয়নপুরে মহাসড়কের পাশে বাকপ্রতিবন্ধী মেয়েটিকে দেখে বাসে তুলে নেয় হেলপার। পরে গাজীপুর সদর উপজেলার মেম্বারবাড়ী মহাসড়কের পাশে নির্জন স্থানে নিয়ে নির্যাতন করে। এরপর আবারও বাসে তুলে নিয়ে নয়নপুরে তোফায়েল হোসেনের পেঁপে বাগানে নিয়ে যায়। অজ্ঞাতপরিচয় দুজনসহ মেয়েটির ওপর নির্যাতন চালায়।

পেঁপে বাগানের পরিচর্যাকারী নাছিউল হাসান বলেন, ‘রাত প্রায় আড়াইটার দিকে এক মেয়ের চিৎকার শুনে আমরা ছুটে যাই। আমরাও চিৎকার করি। পরে স্থানীয়রা এসে ধাওয়া করে দুজনকে আটক করে। বাকি দুজন পালিয়েছে। ’

 


মন্তব্য