kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ফুটবল খেলায় গণ্ডগোল

রাজীবপুরে দুই গ্রাম মুখোমুখি

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলার শিবেরডাঙ্গী ও মরিচাকান্দি গ্রামের লোকজন গতকাল বৃহস্পতিবার দিনভর লাঠিসোঁটা নিয়ে মুখোমুখি অবস্থানে ছিল। ফুটবল খেলা নিয়ে গণ্ডগোলের জেরে এ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, গত সোমবার মরিচাকান্দি বিদ্যালয় মাঠে ফুটবল খেলায় গোল হওয়া না হওয়াকে কেন্দ্র করে দুই দলের মধ্যে ঝগড়া বাধে। মরিচাকান্দি গ্রামের এক স্কুল ছাত্রকে মারধর করে শিবেরডাঙ্গী গ্রামের মানুষ। এ অবস্থায় পরের দিন শিবেরডাঙ্গী গ্রামের একজনকে আটকে মারধর করে মরিচাকান্দি গ্রামের মানুষ। এ নিয়ে দুই গ্রামের মানুষের মধ্যে উত্তেজনা দেখা দেয়। একপর্যায় উভয় গ্রামের বাসিন্দারা মাইকিং করে লোকজন জড়ো করে লাঠিসোঁটা নিয়ে বিক্ষোভ মিছিল করে। এ সময় সংঘর্ষ ঘটে। এতে উভয় গ্রামের কমপক্ষে ২০ জন আহত হয়। তাদের রাজীবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। গ্রামের মানুষ লাঠিসোঁটা রামদা ও ছুরি নিয়ে পাহারা দিয়েছে।

শিবেরডাঙ্গী গ্রামের বাসিন্দা সাবেক ইউপি সদস্য আব্দুস সালাম বলেন, ‘ইউপি চেয়ারম্যান কামরুল আলম বাদল সংঘর্ষের পরিস্থিতি সৃষ্টি করেছেন। কেননা তাঁর বাড়ি মরিচাকান্দি গ্রামে। ফুটবল খেলার সময় তুচ্ছ একটি ঘটনা স্থানীয়ভাবে মীমাংসা করে দিতে পারতেন। তিনি তা না করে তাঁর গ্রামের মানুষকে উসকে দিয়েছেন। ’

 


মন্তব্য