kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


পটুয়াখালীতে বখাটের হামলা

উল্টো জেলে মেয়ের ভাই ও চাচা

পটুয়াখালী প্রতিনিধি   

২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পটুয়াখালীতে কলেজ পড়ুয়া বোনকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় বড় ভাই ও চাচাকে কুপিয়ে জখম করেছে বখাটে যুবক মনিরুল ইসলাম ও তার সাঙ্গোপাঙ্গরা। এ ঘটনায় থানায় মামলা নেয়নি পুলিশ।

বরং এ ঘটনাকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে রাজনৈতিক সহিংসতা দেখিয়ে হামলাকারীদের পক্ষে মামলা নিয়ে ওই ছাত্রীর আহত ভাই ও চাচাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গতকাল রবিবার পটুয়াখালী প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে এ অভিযোগ করেন ঘটনার শিকার ছাত্রীর মা।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, পটুয়াখালী সরকারি মহিলা কলেজে যাওয়া-আসার পথে তাঁর মেয়েকে একই এলাকার মো. কাঞ্চন বাদশার বখাটে ছেলে মনিরুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে উত্ত্যক্ত করে আসছিল। বিষয়টি কাঞ্চনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের জানানো হলে বখাটে মনির ও তার সাঙ্গোপাঙ্গরা গত বুধবার রাতে তাঁর ছেলে ও দেবরকে লাউকাঠি বাজারে কুপিয়ে জখম করে। এ সময় তাদের সঙ্গে থাকা মালামাল ও টাকা-পয়সা লুটে নেয় হামলাকারীরা। পরে স্থানীয় লোকজন তাদের উদ্ধার করে পটুয়াখালী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

ওই ছাত্রীর মা আরো জানান, এ ঘটনায় বখাটে মনিরুল ইসলামসহ ছয়জনকে অভিযুক্ত করে পরদিন বৃহস্পতিবার সদর থানায় তিনি লিখিত অভিযোগ জানান। কিন্তু পুলিশ ওই অভিযোগ আমলে নেয়নি। বরং এটাকে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির মধ্যে মারামারি দেখিয়ে ওই ছাত্রীর বাবা, ভাই, চাচাসহ ১২ জনের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ থানায় দাখিল করা হয়। পুলিশ মনিরের অভিযোগ এজাহার হিসেবে নিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসারত তাঁর ছেলে ও দেবরকে গ্রেপ্তার করে আদালতে হাজির করে। পরে আদালতের নির্দেশে তাদের জেলহাজতে পাঠানো হয়।


মন্তব্য