kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কেটে ফেলা হলো হরিণটির এক পা

নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার   

২৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কেটে ফেলা হলো হরিণটির এক পা

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ উপজেলায় গত বুধবার লোকজনের হাতে ধরা পড়া মায়া হরিণটি বাঁচাতে এর একটি পা কেটে ফেলতে হয়েছে।

লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান বন্য প্রাণী নিরাময়কেন্দ্রের তত্ত্বাবধায়ক সজল দেব বলেন, ‘হরিণটি প্রায় আড়াই বছর বয়সী।

এটি ধরার সময় লোকজন পায়ের যে স্থানে আঘাত করেছিল সেখানের হাড় ভেঙে যায়। স্থানটিতে পচন ধরার উপক্রম হওয়ায় গত শুক্রবার চিকিৎসক অস্ত্রোপচার করে ছয় ইঞ্চি কেটে ফেলেন। হরিণটিকে প্রতিদিন চারটি অ্যান্টিবায়োটিক ইনজেকশন দেওয়া হচ্ছে। প্রাণীটি এখন কিছু কিছু খাচ্ছে। তিন পায়ে দাঁড়াতেও পারছে। তবে হাঁটতে পারছে না। ’

বুধবার দুপুরে রাজকান্দি বন রেঞ্জের কুরমা বনাঞ্চল থেকে প্রায় আড়াই ফুট উচ্চতার মায়া হরিণটি লোকালয়ে বেরিয়ে আসে। এ সময় চাম্পা রায় চা বাগানের শ্রমিকরা হরিণটি ধরে ফেলে। তখন হরিণটি কিছুটা আহত হয়। খবর পেয়ে কুরমা বন বিট কর্মকর্তা চা বাগান থেকে হরিণটি উদ্ধার করে ওই দিনই বিকেলে চিকিৎসার জন্য লাউয়াছড়ায় পাঠান।

রাজকান্দি বন রেঞ্জ কর্মকর্তা শেখর চৌধুরী বলেন, ‘বনকর্মীরা হরিণটি উদ্ধার না করলে লোকজন জবাই করে খেয়ে ফেলত। ’


মন্তব্য