kalerkantho


সাভারে ধরা দুই ভুয়া রাজস্ব কর্মকর্তা

নিজস্ব প্রতিবেদক, সাভার (ঢাকা)   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



সাভারে একটি বিপণিবিতানে রাজস্ব কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে অভিযান পরিচালনার সময় দুই ভুয়া রাজস্ব কর্মকর্তাকে আটক করেছে ঢাকা জেলা গোয়েন্দা (উত্তর) পুলিশের (ডিবি) একটি দল। এ সময় জব্দ করা হয়েছে তাদের ব্যবহৃত জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের স্টিকার লাগানো একটি প্রাইভেট কার। বুধবার রাতে সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডে রাজ্জাক প্লাজার একটি দোকানে রাজস্ব কর্মকর্তা সেজে অভিযান করার প্রস্তুতির সময় তাদের আটক করা হয়।

আটক ভুয়া সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা পরিচয়দানকারীর নাম তৌফিকুর রহমান আজিম। সে মুন্সীগঞ্জের শ্রীনগরের উত্তর কামারগাঁও গ্রামের মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে। অন্যজন তার প্রাইভেট কারের চালক ও সহযোগী সেলিম আহমেদ। তার বাড়ি সাভারে।

এ ব্যাপারে সাভারের ডিবি (উত্তর) পরিদর্শক এ এফ এম সায়েদ জানান, রাজস্ব কর্মকর্তা সেজে প্রতারকরা রাজ্জাক প্লাজার একটি দোকানে অভিযান চালাবে এমন খবর পেয়ে গোয়েন্দা পুলিশের একটি দল সেখানে অবস্থান নেয়। পরে রাত পৌনে ৮টার দিকে একটি প্রাইভেট কারে দুজন সন্দেহজনক ব্যক্তি রাজ্জাক প্লাজার বিভিন্ন দোকানে অভিযানের প্রস্তুতি নিতে থাকে। এ সময় তাদের হাতেনাতে আটক করা হলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা নিজেদের রাজস্ব কর্মকর্তা পরিচয় দেওয়ার কথা স্বীকার করে। এ সময় তাদের কাছ থেকে ভুয়া পরিচয়পত্র ও রাজস্ব বোর্ডের বিভিন্ন জাল সনদ উদ্ধার করা হয়। এ ঘটনায় তাদের বিরুদ্ধে সাভার থানায় একটি মামলা হয়েছে।

আশুলিয়ায় বিচ্ছিন্ন অবৈধ গ্যাসসংযোগ

আশুলিয়ায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের যৌথ অভিযানে ১০ কিলোমিটার এলাকার প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার পরিবারের অবৈধ গ্যাস সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে। তবে এ ঘটনায় কাউকে আটক করা হয়নি। বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত আশুলিয়ার মধুপুর এলাকায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট বিকাশ বিশ্বাস ও সাভার তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানি লিমিটেডের ব্যবস্থাপক প্রকৌশলী সিদ্দিকুর রহমানের নেতৃত্বে এ অভিযান চালানো হয়। এ সময় গ্যাসের অবৈধ সংযোগ পাইপ ও রাইজার জব্দ করেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কম্পানির সাভার জোনের ব্যবস্থাপক সিদ্দিকুর রহমান জানান, দীর্ঘদিন ধরে আশুলিয়ার মধুপুর এলাকায় অবৈধ সংযোগের মাধ্যমে অসংখ্য পরিবার তিতাস গ্যাস ব্যবহার করছিল। তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ খবর পেয়ে বৃহস্পতিবার ওই এলাকায় অভিযান চালায়। এ সময় প্রায় ১০ কিলোমিটার এলাকাজুড়ে স্থাপিত অবৈধ গ্যাস সংযোগের পাইপ ও রাইজার তুলে তা জব্দ করা হয়। এতে প্রায় সাড়ে পাঁচ হাজার অবৈধ গ্যাস ব্যবহারকারী গ্রাহকের সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়েছে এবং মূল্যবান গ্যাসের অবৈধ ব্যবহার বন্ধ হয়েছে।


মন্তব্য