kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রৌমারীতে ইউপি সদস্য কাটলেন সড়কের গাছ

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার বন্দবেড় ইউনিয়নের অধীন বলদমারা সড়কের ৬৫টি জীবন্ত অপরিপক্ব গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। স্থানীয় এক ইউপি মেম্বারের নেতৃত্বে ইউকেলিপটাস জাতের ওই গাছগুলো অবৈধভাবে কেটে ফেলে তা এক লাখ টাকায় বিক্রি করে দেওয়া হয়।

গত দুই দিনে গাছগুলো কাটা হয়।

স্থানীয় বন্দবেড় ইউপি চেয়ারম্যান কবির হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘২০০৫ সালে ইউনিয়ন পরিষদের অধীনে বলদমারা সড়কের দুই পাশে গাছগুলো লাগানো হয়েছিল। আমাকে না জানিয়ে শোভা বর্ধনকারী ইউকেলিপটাস জাতের অপরিপক্ব গাছগুলো ওই ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ড সদস্য আব্দুল করিম সহযোগীদের নিয়ে কেটে ফেলেন। বিষয়টি জানার পর আমি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও থানায় অভিযোগ করি। পরে পুলিশ এসে কেটে ফেলা গাছগুলোর ৮০টি গুঁড়ি জব্দ করে। ’

ইউপি মেম্বার আব্দুল করিমসহ অভিযুক্ত চারজন দাবি করেন, ‘রাস্তা সরকারি হলেও গাছগুলো আমরাই লাগিয়ে পরিচর্যা করেছি। এ কারণে গাছগুলো আমরা কেটে বিক্রি করেছি। এখন পুলিশ এসে গাছ নিতে বাধা দিচ্ছে। ’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবদুল্লাহ আল মামুন জানান, সরকারি রাস্তার গাছ অবৈধভাবে কেটে ফেলার অভিযোগ পাওয়ার পর পুলিশকে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বলেছি। ’

রৌমারী থানার ওসি এ বি এম সাজেদুল ইসলাম জানান, কেটে ফেলা গাছের ৮০টি গুঁড়ি জব্দ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলার প্রস্তুতি নেওয়া হচ্ছে।


মন্তব্য