kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ইলিশ উৎসবেও হাহাকার মুন্সীগঞ্জের পদ্মায়!

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



ইলিশ উৎসবেও হাহাকার মুন্সীগঞ্জের পদ্মায়!

মুন্সীগঞ্জের পদ্মায় ইলিশ না পাওয়ায় জেলেদের নৌকাগুলো এভাবেই অলস পড়ে আছে। ছবিটি গতকাল তোলা। ছবি : কালের কণ্ঠ

পদ্মা-মেঘনা-যমুনায় ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ। স্বাভাবিক দামের চেয়ে কমেই বিক্রি হচ্ছে এসব মাছ।

বলতে গেলে সারা দেশে চলছে ইলিশ উৎসব। দেশের কোথাও কোথাও মাইকিং করেও ইলিশ বিক্রি করছে জেলেরা। অথচ এই ভরা মৌসুমে মুন্সীগঞ্জের লৌহজং ও তত্সংলগ্ন শরীয়তপুর এবং মাদারীপুরের জেলেরা পদ্মায় ইলিশ পাচ্ছে না। এ কারণে গত তিন দিন জেলেরা তাদের মাছ ধরার নৌকাগুলো পদ্মার কাছে খালে নোঙর করে রেখেছে। মাছ ধরতে না পারায় তাদের মানবেতর জীবন যাপন করতে হচ্ছে। কিন্তু কেন মিলছে না ইলিশ?

কারণ অনুসন্ধানে জানা গেছে, বন্যা, ডুবোচর আর নদীর গতিপথ পরিবর্তনের কারণে মুন্সীগঞ্জের লৌহজংয়ের পদ্মা নদী ও তত্সংলগ্ন শরীয়তপুর এবং মাদারীপুরে ইলিশ পাওয়া যাচ্ছে না।

চাঁদপুরের মেঘনা ও এর নিম্নাঞ্চলে আধুনিক ফিশিং বোট দিয়ে এত ঘন ঘন জাল ফেলে মাছ ধরা হচ্ছে, তাতে জালের ফাঁকফোকর দিয়েও ইলিশ ওপরের দিকে উঠতে পারছে না। লৌহজং, শরীয়তপুর ও মাদারীপুরের পদ্মায় ইলিশ অভয়াশ্রম বলে যে এলাকাগুলো ছিল এবারের বন্যায় পাহাড়ি ঢলের সঙ্গে প্রচুর পলি পড়ে ওই আশ্রমগুলো ভরাট হয়ে নদীর গভীরতা কমে গেছে। এ ছাড়া পদ্মা সেতুর পিলার ওপরের দিক উঠতে থাকায় এর দুই পাশে এক কিলোমিটার এলাকা দিয়ে নিষেধাজ্ঞার কারণে পদ্মায় মাছ ধরতে দিচ্ছে না কর্তৃপক্ষ। সব মিলিয়ে ইলিশের এই ভরা মৌসুমে পদ্মায় মিলছে না কাঙ্ক্ষিত ইলিশ।

এ ব্যাপারে লৌহজংয়ের জেলে রুহুল আমিন দেওয়ান বলেন, ‘এ অঞ্চলে এবার আমরা ইলিশ পাচ্ছি না। পদ্মা আর মেঘনার কাছাকাছি মোহনায় দেখা দিয়েছে ডুবোচর। সেখানে পানি রয়েছে মাত্র তিন-চার ফুট। ইলিশ গভীর পানির মাছ। উপকূল থেকে ইলিশগুলো ওপরের দিকে উঠতে না পারার এটা একটা কারণ। ’

মেঘনাল নামের অন্য এক জেলে বলেন, ‘গত তিন মাস ধরে ঘরে বসে আছি। ভরা বর্ষায় শুরু হলো বন্যা আর সেই সঙ্গে প্রচুর স্রোত। এতে পদ্মায় জাল ফেলতেই পারিনি। আর যখন পানি কমতে শুরু করেছে, তখন পদ্মায় ইলিশ পাচ্ছি না। আগে ইলিশের সঙ্গে বড় বড় কিছু রুই-কাতলা ও পাঙ্গাশ মাছও পেতাম। মাছ না পেলে সামনে কিভাবে চলব, তাই নিয়েই এখন যত ভাবনা। ’

এদিকে মাওয়া পদ্মা পারের মত্স্য আড়তে প্রচুর ইলিশ দেখা গেলেও জানা গেছে এগুলো পদ্মার ইলিশ নয়। দক্ষিণ বঙ্গ থেকেই ট্রাক ও নৌপথে এসব ইলিশ আসছে।

আড়তের মাছ বিক্রেতা স্বপন দাস জানান, ইলিশ থাকলে কী হবে, দাম পড়েনি এখানে। বড় ইলিশের দাম বরাবরের মতো বেশি। স্থানীয় জেলেদের জালে ইলিশ ধরা না পড়লেও উপকূলীয় অঞ্চলের ইলিশের কমতি নেই এখানে।


মন্তব্য