kalerkantho

মঙ্গলবার। ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ । ৯ ফাল্গুন ১৪২৩। ২৩ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শিবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফের গুলি ব্যবসায়ী আহত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি   

২০ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



শিবগঞ্জ সীমান্তে বিএসএফের গুলি ব্যবসায়ী আহত

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের ক্লাব সুপারমার্কেটের ভেতরের ফুলের বাগান ও ফোয়ারা ভেঙে নতুন করে মার্কেট ব্লক নির্মাণের উদ্যোগের প্রতিবাদে দোকানপাট বন্ধ রেখে আন্দোলনে নেমেছে ক্লাব সুপারমার্কেটের ব্যবসায়ীরা। দ্বিতীয় দিনের মতো দোকান বন্ধ রেখে গতকাল ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন ও সমাবেশ করে। ছবি : কালের কণ্ঠ

চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জ উপজেলার তেলকুপি সীমান্তে রবিবার রাতে বিএসএফের গুলিতে মো. আবির হোসেন নামের এক বাংলাদেশি গরু ব্যবসায়ী আহত হয়েছেন। তিনি শিবগঞ্জের তেলকুপি গ্রামের আব্দুল লতিফের ছেলে। তাঁকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাতেই হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত আবিরের ভাই আবদুর রশিদ জানান, আবিরসহ কয়েকজন ভারতে গরু আনতে যাওয়ার সময় সন্ধ্যায় তেলকুপি সীমান্তে বিএসএফ তাদের লক্ষ্য করে গুলি করে। তাতে আবির হোসেন গুরুতর আহত হন।

তবে চাঁপাইনবাবগঞ্জ বিজিবির ৯ ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক লে. কর্নেল আবুল এহেসান বলেন, তেলকুপি সীমান্তে তারকাঁটা কাটার সময় ভারতের ২৪ বিএসএফ ব্যাটালিয়নের গোপালনগর ক্যাম্পের জওয়ানরা গুলি চালায়। এদিকে গুলিবিদ্ধ আবিরকে স্থানীয়রা দ্রুত উদ্ধার করে চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যায়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাঁকে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। আবিরের ভাই রশিদ হোসেন জানান, সোমবার দুপুরে রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে আবিরের অস্ত্রোপচার করা হয়েছে।

ব্যবসায়ীদের মানববন্ধন

চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের ক্লাব সুপারমার্কেটের ভেতরের ফুলের বাগান ও ফোয়ারা ভেঙে নতুন করে মার্কেট ব্লক নির্মাণের উদ্যোগের প্রতিবাদে দোকানপাট বন্ধ রেখে আন্দোলনে নেমেছে ক্লাব সুপারমার্কেটের ব্যবসায়ীরা। দ্বিতীয় দিনের মতো দোকান বন্ধ রেখে গতকাল সোমবার ব্যবসায়ীরা মানববন্ধন ও সমাবেশ করেছে।

গতকাল দুপুরে মার্কেটের সামনে ঘণ্টাব্যাপী ওই মানববন্ধন কর্মসূচিতে মার্কেটের ব্যবসায়ী ও কর্মচারীরা অংশ নেন। এ সময় বক্তব্য দেন মার্কেট কমিটির সভাপতি আব্দুল খালেক, সাধারণ সম্পাদক জাবেদ আখতার, সাবেক সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ আহসান আলী বেলাল, ব্যবসায়ী মজিবুর রহমান, সেলিম রেজা প্রমুখ।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ফুল বাগান ভেঙে নতুন করে মার্কেট করা হলে এর পরিবেশ নষ্ট হবে। ব্যবসায়ীরাও আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হবেন। ফুল বাগান ভেঙে মার্কেটের নতুন ব্লক নির্মাণ বন্ধের দাবি জানিয়ে বক্তারা মার্কেটের নানা অব্যবস্থাপনা ও অনিয়মের কথাও তুলে ধরেন।


মন্তব্য