kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কৃষ্ণপুর গণহত্যা

হবিগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



হবিগঞ্জের লাখাইয়ের কৃষ্ণপুর ট্র্যাজেডি দিবস আজ ১৮ সেপ্টেম্বর। ১৯৭১ সালের এই দিনে পাকিস্তানি বাহিনী ১২৭ জন মুক্তিযোদ্ধাকে হত্যা করেছিল।

এই গণহত্যার জন্য দায়ী করা হয় মুড়াকরি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান লিয়াকত আলীকে। তাঁর বিরুদ্ধে যুদ্ধাপরাধ ট্রাইব্যুনালে মামলা হয়েছে। চলছে সাক্ষ্যগ্রহণও। এরই মধ্যে গোপনে বিদেশে পাড়ি দিয়েছেন লিয়াকত। সেদিনের স্মৃতিচারণা করে কৃষ্ণপুরের মন্টু রায় (৭০) বলেন, ‘পাক বাহিনী আমাকে গুলি করার জন্য লাইন ধরিয়েছে। গুলিটি পেটে না লেগে বাঁ হাতে লাগে। হাতটি দেহ থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে কয়েক ফুট দূরে ছিটকে পড়ে। অজ্ঞান হয়ে পড়ে থাকি। প্রায় এক দিন পর গ্রামের নারীরা আমাকে সেবা-শুশ্রূষা করে বাঁচিয়ে তোলে। সেই থেকে আমি পঙ্গু অবস্থায় বেঁচে আছি। ’ এদিকে দিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচির আয়োজন করেছে স্থানীয়রা। এ ছাড়া বিভিন্ন সংগঠন ও উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক অর্পণ করা হবে।


মন্তব্য