kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


রৌমারীতে ভিজিএফের চাল ‘লুট’

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কুড়িগ্রামের রৌমারীর দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নে ৯০০ দুস্থ পরিবারের চাল লুট করার অভিযোগ উঠেছে সরকারি দলের নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে। গত শনিবার ইউনিয়ন পরিষদে ভিজিএফের চাল বিতরণের সময় স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা জোর করে এসব নিয়ে যায়।

এ সময় চাল লুটের ছবি তুলতে গেলে স্থানীয় এক সাংবাদিককে লাঞ্ছিত করে প্রায় এক ঘণ্টা তাঁকে অবরুদ্ধ রাখা হয়।

এলাকাবাসী জানায়, ঈদুল আজহা উপলক্ষে দুস্থদের মধ্যে বিতরণের জন্য সরকার পরিবারপ্রতি ১০ কেজি করে চাল বরাদ্দ দেয়। দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নে পাঁচ হাজার ৯৭টি দুস্থ পরিবারের জন্য ৫১ টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়। শনিবার দুপুরে পরিষদের চেয়ারম্যান শামসুল হকসহ ইউপি সদস্যরা চাল বিতরণ শুরু করলে দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়নের ক্ষমতাসীন দলের নেতাকর্মীরা হানা দিয়ে ৯০০ পরিবারের চাল নিয়ে যায়।

দাঁতভাঙ্গা ইউপি চেয়ারম্যান শামসুল হক অভিযোগ করে বলেন, ‘সরকারি দলের নেতাকর্মীদর প্রভাবে আমি অসহায়। প্রকাশ্যেই তারা পরিষদে ঢুকে ৯০০ দুস্থ পরিবারের চাল ছিনিয়ে নেয়। বাধা দিতে গেলে তারা আমার ওপর চড়াও হয়। এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা বরাবর অভিযোগ দিয়েও কোনো কাজ হয়নি। ’

অভিযোগ প্রসঙ্গে জানতে চাইলে দাঁতভাঙ্গা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি শামিউল ইসলাম জীবন বলেন, ‘চাল ছিনিয়ে নেওয়ার ঘটনা সত্য নয়। আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে দেওয়া ৯০০ দুস্থ পরিবারের চাল দলের নেতাকর্মীরা পরিষদ থেকে নিয়ে বিতরণ করেছে। চাল কালোবাজারে বিক্রির অভিযোগও সঠিক নয়। আর সাংবাদিক লাঞ্ছিতের বিষয়টি সমাধান করে দেওয়া হয়েছে। ’ 

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন তালুকদার বলেন, ‘ঘটনাটি আমি শুনেছি। আমি ওই চেয়ারম্যানকে থানায় অভিযোগ দিতে বলেছি। ’


মন্তব্য