kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুবককে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যা

কেরানীগঞ্জে আরেক যুবক গণপিটুনিতে নিহত

কেরানীগঞ্জ (ঢাকা) প্রতিনিধি   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কেরানীগঞ্জে এক যুবককে বাসা থেকে ডেকে নিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। গতকাল শনিবার সকালে কেরানীগঞ্জ মডেল থানাধীন দক্ষিণ মান্দাইল বাজার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ছাড়া গত শুক্রবার রাতে একই থানাধীন মেকাইল মাদ্রাসার সামনে ছিনতাইকারী সন্দেহে গণপিটুনিতে অজ্ঞাতপরিচয় যুবক নিহত হয়েছেন।

নিহত মো. রুবেলের (২৪) বড় বোন মায়া বেগম বলেন, ‘সকাল ৮টার দিকে রুবেলকে কে বা কারা মুঠোফোনে কল দিয়ে ডেকে নিয়ে যায়। এর ১০ মিনিট পর পাশের বাড়ির আন্টি আমার মাকে ডাকতে এসে জানান, রুবেলের সঙ্গে কার যেন ঝগড়া হচ্ছে। আমরা বের হয়ে আলমগীর হাজামের বাড়ির সামনে গিয়ে দেখি, ভাইয়ের লাশ পড়ে আছে। সে বিভিন্ন সময় এলাকায় মাদক বিক্রিতে বাধা দিত। এমনকি সে বেশ কয়েকজনকে পুলিশে ধরিয়ে দিয়েছে। মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে খুন করতে পারে। ’

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) অলিয়ার রহমান বলেন, ‘নিহতের বুকের বাঁ পাশে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। নিহতের মা শহর বানু থানায় হত্যা মামলা করেছেন। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। ’

এদিকে গত শুক্রবার রাতে মেকাইল মাদ্রাসার সামনে নুরুল আমিন নামে এক যুবকের মোটরসাইকেল ছিনতাই করার চেষ্টা করে তিন-চারজন সশস্ত্র যুবক। যুবকরা নুরুল আমিনকে ছুরিকাঘাত করে মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। আহতের চিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এসে যুবকদের ধাওয়া করে। একপর্যায়ে একজনকে ধরে গণপিটুনি দেয়। পরে পুলিশ ওই যুবককে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য প্রথমে স্যার সলিমুল্লাহ মেডিক্যাল কলেজ এবং পরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যায়। গতকাল সকালে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ওই যুবক মারা যায়।

কেরানীগঞ্জ মডেল থানার এসআই ইউসুফ আলী বলেন, এ ঘটনায় নুরুল আমিন বাদী হয়ে ছিনতাই মামলা এবং পুলিশ বাদী হয়ে হত্যা মামলা করেছে।


মন্তব্য