kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শোলাকিয়ায় এবার নজিরবিহীন নিরাপত্তা

র‌্যাব-পুলিশের সঙ্গে থাকবে বিজিবি

কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি   

১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় ঈদুল আজহার ১৮৯তম জামাতকে নিরাপদ ও নির্বিঘ্ন করতে র‌্যাব-পুলিশের পাশাপাশি বিজিবি মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন। ঈদের দিন শোলাকিয়া মাঠ ও আশপাশের এলাকায় তিন প্লাটুন বিজিবি মোতায়েন থাকবে।

তা ছাড়া র‌্যাব-পুলিশসহ অন্যান্য বাহিনীর বিপুলসংখ্যক সদস্যও মাঠের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে।

শোলাকিয়া ঈদগাহ মাঠের সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাস এবং পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান এসব তথ্য জানিয়ে বলেন, এবার মাঠে কাউকে কোনো ধরনের ব্যাগ নিয়ে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

গত ঈদুল ফিতরের দিন শোলাকিয়া মাঠের পাশে জঙ্গি হামলার পরিপ্রেক্ষিতে এবার নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা আরো জোরদার ও কঠোর করা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।   এবার ঈদের জামাতে ইমামতি করবেন মাওলানা ফরিদ উদ্দীন মাসউদ। ঈদুল ফিতরে নামাজ পড়াতে তিনি কিশোরগঞ্জে গেলেও জঙ্গিদের হামলার পর মাঠে না গিয়ে ঢাকায় ফিরে যান।

শনিবার দুপুরে শোলাকিয়া মাঠে গিয়ে দেখা গেছে, পুলিশ বাহিনীর লোকজন এরই মধ্যে মাঠের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। ঈদের জামাতের জন্য শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছে শ্রমিকরা।

এ সময় এলাকার কয়েকজনের সঙ্গে কথা হলে তাঁরা বলেন, ঈদুল ফিতরে জঙ্গি হামলার কথা তাঁরা কিছুতেই ভুলতে পারছে না। গত ঈদে যাঁরা এ মাঠে নামাজ পড়তে এসেছিলেন, তাঁদের অনেকেই হয়তো ভয়ে এবার আর এখানে আসবেন না। পুলিশ সুপার আনোয়ার হোসেন খান জানান, সব কিছু মাথায় রেখে এবার শোলাকিয়ায় নজিরবিহীন নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। তিন স্তরের নিরাপত্তা বলয়ের মধ্যে থাকবে বিপুল সংখ্যক বিজিবি, র‌্যাব-পুলিশ, এপিবিএন ও আনসার সদস্য। তা ছাড়া সাদা পোশাকে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা মাঠের ভেতর ও বাইরে কাজ করবে। ঈদের দিন মাঠের তিন দিকের সব প্রবেশপথ বন্ধ করে দেওয়া হবে। মাঠের সামনের দুটি গেটে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে দেহ তল্লাশির পর মুসল্লিদের  ঢুকতে দেওয়া হবে। মাঠ ঘিরে থাকবে সিসি ক্যামেরার নজরদারি। জেলা প্রশাসক মো. আজিমুদ্দিন বিশ্বাস বলেন, গত ঈদে অপ্রত্যাশিত জঙ্গি হামলার বিষয়টি মাথায় রেখেই এবার নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঢেলে সাজানো হয়েছে। ঈদ ঘিরে সব প্রস্তুতি শেষের দিকে রয়েছে। তিনি এ সময় নিরাপত্তার প্রশ্নে গৃহীত পদক্ষেপগুলোর বিষয়ে জনসাধারণকে সহযোগিতার আহ্বান জানান।

প্রসঙ্গত, গত ৭ জুলাই ঈদুল ফিতরের দিন সকালে শোলাকিয়ার ঈদগাহের পাশে আজিমুদ্দিন স্কুলের সামনে পুলিশের ওপর হামলা চালায় জঙ্গিরা।


মন্তব্য