kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সখীপুরে বিদ্যুৎ অফিসে হামলা

সুনামগঞ্জে অবরোধ, বিক্ষোভ

সুনামগঞ্জ ও সখীপুর (টাঙ্গাইল) প্রতিনিধি   

৯ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



টাঙ্গাইলের সখীপুর বিদ্যুৎ বিক্রয় ও বিতরণ বিভাগের (বিওবি) নির্বাহী প্রকৌশলীর কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও তিনজনকে আহত করেছে বিক্ষুব্ধ গ্রাহকরা। এলাকায় বিদ্যুৎ না থাকায় গতকাল বৃহস্পতিবার এ হামলা চালানো হয়।

সূত্র জানায়, উপজেলার নলুয়া ফিডারের আওতাধীন দাড়িয়াপুর গ্রামের গ্রাহকরা এক সপ্তাহ ধরে বিদ্যুৎ না পাওয়ায় ক্ষুব্ধ হয়। এর জের ধরে গতকাল দুপুরে শতাধিক লোক লাঠিসোঁটা নিয়ে ওই কার্যালয়ে হামলা চালিয়ে সাতটি জানালার কাচ ভাঙচুর করে। বাধা দিলে গড়গোবিন্দপুর গ্রামের রফিকুল ইসলাম রানা (২৩), মঞ্জুরুল হাসান (৩০) ও শফিকুল ইসলামকে (৩৯) পেটানো হয়। তাঁদের উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। কার্যালয়ের নিরাপত্তা প্রহরী লেলিন সরকার জানান, বিক্ষুব্ধরা প্রধান ফটকের কলাপসিবল গেট ভেঙে ভেতরে ঢুকে ইটপাটকেল ছুড়ে ভাঙচুর করে। এ সময় ভীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়। দাড়িয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান এস এম শাইফুল ইসলাম শামীম বলেন, ‘খবর পেয়ে ওই কার্যালয়ে গিয়ে বিক্ষুুব্ধ জনতাকে ফিরিয়ে এনেছি। ’ সখীপুর থানার ওসি মাকছুদুল আলম বলেন, অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে। বিওবির নির্বাহী প্রকৌশলী শাহাদাত আলী বলেন, সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুর করায় হামলাকারীদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুতের দাবিতে সুনামগঞ্জ-সিলেট সড়ক প্রায় ঘণ্টাব্যাপী অবরোধ করে বিক্ষোভ ও মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করেছে ব্যবসায়ীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে সুনামগঞ্জ সদর উপজেলার নীলপুর ও মদনপুর পয়েন্টের ব্যবসায়ীরা ওই কর্মসূচি পালন করে। এ সময় জানিগাঁও থেকে মদনপুর পয়েন্ট পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকাজুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে।

মানববন্ধন পরবর্তী সভায় ব্যবসায়ীরা জানান, কিছুদিন ধরে ঘন ঘন লোডশেডিং হচ্ছে। প্রাকৃতিক কোনো দুর্যোগ না থাকার পরও রাত-দিনে দীর্ঘক্ষণ বিদ্যুৎ থাকছে না। এতে বিদ্যুতের ওপর নির্ভরশীল ব্যবসায়ীরাসহ সাধারণ মানুষ বিরাট ক্ষতির মুখে পড়েছে। ভোগান্তিতে পড়েছে স্থানীয় গ্রাহকরা।


মন্তব্য