kalerkantho

বুধবার । ৭ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৬ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সড়ক দুর্ঘটনা

বামনায় শিক্ষক নীলফামারীতে ছাত্র নিহত, আগুন অবরোধ

মাদারীপুর ও সুবর্ণচরে শিশুসহ দুজনের মৃত্যু

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



বামনায় শিক্ষক নীলফামারীতে ছাত্র নিহত, আগুন অবরোধ

বরগুনার বামনায় সড়ক দুর্ঘটনায় একজনের নিহত হওয়ার জের ধরে বাসটিতে আগুন ধরিয়ে দেয় এলাকাবাসী। ছবি : কালের কণ্ঠ

বরগুনার বামনা, নোয়াখালীর সুবর্ণচর ও মাদারীপুরে গতকাল সোমবার সড়ক দুর্ঘটনায় শিশুসহ তিনজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। বামনায় কলেজ শিক্ষক নিহত হওয়ার ঘটনায় বাসে আগুন দিয়েছে বিক্ষুব্ধ জনতা।

নীলফামারীতে স্কুল ছাত্রের মৃত্যুর প্রতিবাদে সড়ক অবরোধ করে শিক্ষার্থীরা। কালের কণ্ঠ’র প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

বরগুনা ও পিরোজপুর (আঞ্চলিক) : দুপুরে বামনা উপজেলার চালিতাবুনিয়া-ডৌয়াতলা সড়কের চালিতাবুনিয়া গ্রামে যাত্রীবাহী বাসের ধাক্কায় নিহতের নাম মো. কবীর হাজি (৫০)। তিনি বামনার বড় তালেশ্বর গ্রামের কাদের হাজির (মৃত) ছেলে ও ঝালকাঠির কাঁঠালিয়ার আমুয়া শহীদ রাজা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষক। প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র জানায়, কবীর হাজি মোটরসাইকেল চালিয়ে কলেজে যাচ্ছিলেন। পথে বিপরীত দিক থেকে আসা জুঁই পরিবহন নামের একটি যাত্রীবাহী বাস মোটরসাইকেলটিকে ধাক্কা দেয়। এতে কবীর রাস্তায় ছিটকে পড়েন। ঘটনাস্থলেই তাঁর মৃত্যু হয়। পরে বিক্ষুব্ধ জনতা বাসচালক মো. আলী আকবর, তাঁর সহকারী মো. ইয়ামিনকে আটক করে ও বাসটিতে আগুন দেয়। পুলিশ গিয়ে ঝালকাঠির নলছিটির রায়পাশা গ্রামের বাসচালককে উদ্ধার করলেও সহকারী পালিয়ে যান। বামনা থানার ওসি মো. শাহাবুদ্দিন জানান, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য বরগুনা জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নীলফামারী : স্কুল ছাত্র অনুকূল চন্দ্র রায় নিহত হওয়ার প্রতিবাদে গতকাল দুপুরে নীলফামারী-ডোমার সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছে পলাশবাড়ী পরমশমণি দ্বিমুখী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা। এর আগে তারা ক্লাস বর্জন করে। এ সময় অভিযুক্ত পিকআপ ভ্যানচালকের শাস্তির দাবি জানানো হয়।

রবিবার বিকেলে বিদ্যালয় থেকে বাড়ি ফেরার পথে ওই সড়কের পলাশবাড়ী শুকানদিঘি এলাকায় পিকআপ ভ্যানের ধাক্কায় নিহত হয় পলাশবাড়ী পরশমণি দ্বিমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্র অনুকূল চন্দ্র রায়। সে সদর উপজেলার কিষামত ভুটিয়ান গ্রামের চিত্তরঞ্জন রায়ের ছেলে। এ সময় আহত অনুকূলের সহপাঠী একই গ্রামের অলক কান্তি রায়ের ছেলে রতন কুমার রায়কে নীলফামারী সদর আধুনিক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সদর থানার ওসি বাবুল আকতার বলেন, এ ঘটনায় নিহত অনুকূল চন্দ্র রায়ের বাবা চিত্তরঞ্জন রায় গতকাল থানায় একটি মামলা করেছেন। পিকআপ ভ্যানটিসহ চালক আতাউর রহমানকে আটক করা হয়েছে।

মাদারীপুর : সদর উপজেলার হাউসদি এলাকায় সকালে অটোরিকশার সঙ্গে মাহেন্দ্র পরিবহনের মুখোমুখি সংঘর্ষে একজন নিহত ও তিনজন আহত হয়েছে। নিহত কাওছার হাওলাদার পশ্চিম রাস্তি এলাকার আ. সালাম হাওলাদারের ছেলে। আহতরা মাদারীপুর সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সদর থানার ওসি জিয়াউল মোর্শেদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

নোয়াখালী : সুবর্ণচর উপজেলার চরভাটা ইউনিয়নের মুকুলিয়া-চরভাটা সড়কে সকালে পিকআপের ধাক্কায় নিহত শিশুর নাম রিশিতা আহমেদ পাখি (৭)।


মন্তব্য