kalerkantho

শুক্রবার । ৯ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৮ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সিদ্ধিরগঞ্জে এসআইয়ের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ

পুলিশি তদন্ত নিয়ে সন্দেহ

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



পুলিশি তদন্ত নিয়ে সন্দেহ

এসআই আতাউর রহমান

নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) আতাউর রহমানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের সংশ্লিষ্টতা পায়নি পুলিশের গঠিত তদন্ত কমিটি। এ তদন্ত নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছে বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ মহানগর শাখা।

এদিকে গতকাল শনিবার বাদীর আইনজীবীর কক্ষে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা লাখ টাকার বিনিময়ে দুই নারীর সঙ্গে ঘটনা আপস করেছেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, রিমান্ডে নির্যাতনের ভয় দেখিয়ে ৩১ আগস্ট রাতে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পাশে সোর্স নজরুল ভাড়া বাসায় ডেকে আনেন আসামির দুই স্ত্রীকে (সতিন)। এ দুই নারীকে এসআই আতাউর রহমান ও দুই সোর্স নজরুল ও শুভ নির্যাতন করেন। পরদিন ওই দুই নারী গণমাধ্যমকর্মী ও আইনজীবীদের কাছে এ অভিযোগ করেন। শুক্রবার কালের কণ্ঠ ‘নির্যাতনের ভয় দেখিয়ে আসামির স্ত্রীকে ধর্ষণ!’ শিরোনাম খবর প্রকাশ করে।

খবর প্রকাশের পর শুক্রবার সকালে এক গণমাধ্যমকর্মীর মুঠোফোনে দুই নারীর একজন কল করে বলেন, ‘আমাদেরকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম, এসআই আতাউর রহমান কল করে থানায় যেতে বলছেন। এসআই আতাউরের নাম বলায় আমাদেরকে হুমকি-ধমকি দেওয়া হচ্ছে। ’

এদিকে শুক্রবার বিকেল ৩টার দিকে নারায়ণগঞ্জ নতুন কোর্ট ভবনের পাশে আইনজীবী মজিবুর রহমানের চেম্বারে আসেন পরিদর্শক রফিকুল ও এসআই ওমর ফারুক। পরে তাঁরা ঘটনা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়ে আইনজীবীর চেম্বার থেকে দুই নারীকে পুলিশের হেফাজতে থানায় নিয়ে যান।

শুক্রবার রাতে আইনজীবী মজিবুর রহমান বলেন, ‘আমার চেম্বারে বসে পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা দুই নারীকে চাপ দিয়ে এক লাখ টাকায় রফাদফা করেন। রবিবার ওই টাকা দিয়ে দেবে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পরে দুজনকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় নিয়ে জুডিশিয়াল স্ট্যাম্পে সমঝোতার স্বাক্ষর নেওয়া হয়েছে। ’ সিদ্ধিরগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সরাফতউল্লাহ বলেন, ‘শুক্রবার রাতে নারীদের একজন সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় মামলা করেছেন। মামলায় দুই সোর্সকে আসামি করা হয়েছে। ’ তিন সদস্যের তদন্ত কমিটির প্রধান অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) ফারুক হোসেন বলেন, ‘তদন্তে এসআই আতাউরের কোনো সংশ্লিষ্টতা পাওয়া যায়নি। তবে দায়িত্বে অবহেলার কারণে শনিবার তাঁকে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা থেকে প্রত্যাহার করে পুলিশ লাইনে পাঠানো হয়েছে। ’ এ বিষয়ে নারায়ণগঞ্জ ১০০ শয্যাবিশিষ্ট হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. আসাদুজ্জামান বলেন, ‘গতকাল শনিবার সকালে দুই নারীর স্বাস্থ্য পরীক্ষার নমুনা সংশ্লিষ্ট দপ্তরে পাঠানো হয়েছে। প্রতিবেদন আসার পর বিস্তারিত জানা যাবে। তবে তাঁদের কারা নির্যাতন করেছে সেটা জানতে হলে ডিএনএ (ডিঅক্সিরাইবোনিউক্লিক অ্যাসিড) পরীক্ষা করাতে হবে। ’ বাংলাদেশ মহিলা পরিষদ নারায়ণগঞ্জ মহানগর শাখার সাধারণ সম্পাদক শাহানারা খানম বলেন, ‘আমরা এ ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্ত দাবি করছি। ’


মন্তব্য