kalerkantho


প্রধান শিক্ষকের বেত্রাঘাতে হাসপাতালে ছাত্রী

পীরগাছা থানায় অভিযোগ

রংপুর অফিস   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



চৌধুরানী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোন্নাফ সরকারের বিরুদ্ধে রংপুরের পীরগাছা থানায় গতকাল শনিবার লিখিত অভিযোগ করেছেন এক ছাত্রীর চাচা। শিক্ষক ওই ছাত্রীকে বেত্রাঘাতে অচেতন করেছিলেন। পরে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অনুযায়ী, শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক শাস্তি দেওয়া যাবে না।

অভিভাবকরা জানান, শারীরিক অসুস্থতার কারণে পাঁচ দিন বিদ্যালয়ে অনুপস্থিত ছিল অষ্টম শ্রেণির ওই ছাত্রী (১৪)। পরে সুস্থ হয়ে গত বৃহস্পতিবার বিদ্যালয়ে উপস্থিত হয়। তাকেসহ আট শিক্ষার্থীর অনুপস্থিত থাকার কারণ না জেনে প্রধান শিক্ষক মোন্নাফ সরকার তাদের বেত ও লাঠি দিয়ে বেধরক মারধর করেন। এতে ওই আটজন ছাত্রী আহত হয়। পরে গুরুতর আহত ছাত্রীকে অচেতন অবস্থায় তার সহপাঠীরা উদ্ধার করে অভিভাবকের সহযোগিতায় পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। এ ঘটনায় মেয়ের চাচা ঠান্ডা মিয়া বাদী হয়ে গতকাল পীরগাছা থানায় মামলা করেন।

পীরগাছা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. পুলক সরকার বলেন, ‘মেয়েটির শরীরের বিভিন্ন অংশে আঘাতের চিহ্ন আছে। ’

অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষক মোন্নাফ সরকার বলেন, ‘প্রতিষ্ঠানের নিয়মশৃঙ্খলা ভঙ্গের কারণে ওই শিক্ষার্থীসহ কয়েকজনকে সামান্য মারধর করা হয়েছে। ’ পীরগাছা থানার ওসি আমিনুল ইসলাম বলেন, ‘বিষয়টি অমানবিক। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হবে। ’


মন্তব্য