kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


ভ্রাম্যমাণ আদালত

ইউপি সদস্যসহ চারজনকে অর্থদণ্ড

মেহেরপুর, রাজবাড়ী ও নাটোর প্রতিনিধি   

৪ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



মেহেরপুরে নাবালিকার বিয়ের আয়োজনের অপরাধে এক ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) ও বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ কমিটির সদস্য, বর ও কাজিকে এক হাজার টাকা করে জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গত শুক্রবার সন্ধ্যায় নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. আরিফ হোসেন আদালত পরিচালনা করেন।

অর্থদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন মুজিবনগর উপজেলার দারিয়াপুর ইউপি সদস্য তারা মিয়া, বর আনন্দবাস গ্রামের ওবায়দুল হকের ছেলে শফিক উদ্দিন ও কাজি হাসানুজ্জামান।

সূত্র জানায়, শফিক উদ্দিনের সঙ্গে দারিয়াপুর গ্রামের দশম শ্রেণির এক ছাত্রীর বিয়ের আয়োজন করা হয়। সংবাদ পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত বিয়েবাড়িতে অভিযান চালান। জেলা প্রশাসক পরিমল সিংহ বলেন, বাল্যবিয়ে প্রতিরোধ কমিটির সদস্য ও ইউপি সদস্য বাল্যবিয়ের আয়োজন করে অন্যায় করেছেন। এ বিষয়ে বিভাগীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এদিকে চিকিৎসক স্বল্পতাসহ নানা অনিয়মের অভিযোগে নাটোর শহরের একতা ক্লিনিকের মালিক শহিদুল ইসলামকে দুই লাখ টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক জাহাঙ্গীর আলম। গতকাল শনিবার দুপুরে র‍্যাব-৫ ক্লিনিকটিতে এ অভিযান চালায়। অভিযানকালে ক্লিনিকটিতে চিকিৎসক সংকটসহ অপারেশন থিয়েটারে একই সিরিঞ্জ ও যন্ত্রপাতি একাধিকবার ব্যবহার করার অনিয়ম দেখা যায়। পরে প্রয়োজনীয় চিকিৎসক নিয়োগসহ সব সমস্যা সমাধানে ক্লিনিকটির মালিককে এক মাসের সময় বেঁধে দেওয়া হয়।

এদিকে রাজবাড়ীর পাংশায় গতকাল শনিবার গাঁজা সেবনের অভিযোগে সবদুল বিশ্বাস (২৫) নামের একজনকে ছয় মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাশেদুল ইসলাম আদালত পরিচালনা করেন। সবদুলের বাড়ি পাংশার কোরাপাড়া গ্রামে।


মন্তব্য