kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


দায় স্বীকার করে আদালতে দুজনের জবানবন্দি

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

১ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ ০০:০০



দায় স্বীকার করে আদালতে দুজনের জবানবন্দি

কুমিল্লায় যুবলীগ নেতা এ টি এম তারিকুল ইসলাম টিটুকে গুলি করে হত্যার ঘটনায় দুজন দায় স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দি দিয়েছে। গতকাল বুধবার জ্যেষ্ঠ বিচার বিভাগ হাকিম মুস্তাইন বিল্লাহর কাছে তারা ১৬৪ ধারায় এই জবানবন্দি দেয়।

জবানবন্দি দেওয়া দুজন হলো রফিকুল ইসলাম লিমন মিয়া ওরফে চোরা লিমন ও রিয়াজ উদ্দিন হৃদয়।

এদিকে গতকাল মামলার আরেক আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

জেলার পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন আরো এক আসামিকে গ্রেপ্তারের বিষয়টি স্বীকার করেছেন। তিনি তদন্তের স্বার্থে তার নাম জানাতে অপারগতা প্রকাশ করেন।

তবে বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, গ্রেপ্তার করা এই ব্যক্তি মামলার ৪ নম্বর আসামি মোটা লিমন।

এর আগে গত ২৮ আগস্ট চোরা লিমনকে অস্ত্রসহ আটক করার পর যুবলীগ নেতা টিটু হত্যাকাণ্ডের রহস্য উদ্ঘাটিত হয়। পরদিন গ্রেপ্তার করা হয় হৃদয়কে। গত মঙ্গলবার দুজনকে নিয়ে শহরের ঠাকুরপাড়া এলাকার একটি পরিত্যক্ত বাড়ির সেপটিক ট্যাংক থেকে টিটুর কঙ্কাল উদ্ধার করা হয়।

নিহত তারিকুল ইসলাম টিটু কুমিল্লার দেবীদ্বার পৌর এলাকার গোমতী আবাসিক এলাকার মৃত আবু তাহের মাস্টারের ছেলে। গত বছরের ২ জুলাই থেকে তিনি নিখোঁজ ছিলেন।

ঘটনার পর টিটুর স্ত্রী সেলিনা আক্তার শোভা ওই বছরের ১৩ জুলাই দেবীদ্বার থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন। এরপর ৮ মার্চ টিটুর মা রাজিয়া সুলতানা আদালতে একটি মামলা করেন। মামলাটি তদন্তের দায়িত্ব পায় পুলিশের গোয়েন্দা শাখা (ডিবি)। তবে ছেলের কঙ্কাল উদ্ধারের পর রাজিয়া সুলতানা মঙ্গলবার গভীর রাতে কুমিল্লা কোতোয়ালি মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা করেন। এই মামলায় সাতজনের নাম উল্লেখ করে এবং অজ্ঞাতপরিচয় আরো দুই-তিনজনকে আসামি করা হয়েছে।

ডিবির এসআই সহিদুল ইসলাম জানান, টিটু হত্যা মামলায় বাকি আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


মন্তব্য