kalerkantho


স্বাধীনতার জয়গান

প্রিয় দেশ ডেস্ক   

২৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



স্বাধীনতার জয়গান

যুদ্ধাপরাধীদের বিচার শেষ করার দাবিসহ দিনব্যাপী নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে গতকাল শনিবার সারা দেশে ৪৬তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালিত হয়েছে। আমাদের নিজস্ব প্রতিবেদক ও প্রতিনিধিদের পাঠানো খবর :

মৌলভীবাজার : মৌলভীবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠের স্মৃতিস্তম্ভে স্থানীয় সংসদ সদস্য সৈয়দা সায়রা মহসীন, জেলা আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ, জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ড কাউন্সিল, জেলা পরিষদের প্রশাসক, ওয়ার্কার্স পার্টি, বঙ্গবন্ধু প্রজন্মলীগ, শিল্পকলা একাডেমি, রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদ, মৌলভীবাজার প্রেসক্লাব, কমিউনিস্ট পার্টি, জাসদ, যুবজোট, ব্যাংক অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও সংগঠন ফুল দেয়।

জয়পুরহাট : যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির রায় দ্রুত কার্যকরের দাবির মধ্য দিয়ে গতকাল জেলায় দিবসটি পালিত হয়েছে। পরে শিশু একাডেমিতে চিত্রাঙ্কন ও বিকেলে স্টেডিয়ামে ফুটবল প্রতিযোগিতা হয়। সন্ধ্যায় শহীদ ডা. আবুল কাশেম মাঠে হয় আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

নীলফামারী : জেলার ডোমার, ডিমলা, জলঢাকা, কিশোরগঞ্জ ও সৈয়দপুর উপজেলায় আলাদা কর্মসূচি পালিত হয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলার টুপামারী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ তিন মুক্তিযোদ্ধাকে সংবর্ধনা দিয়েছে।

ময়মনসিংহ : সকালে স্থানীয় রফিক উদ্দিন ভূঁইয়া স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজের উদ্বোধন করেন ধর্মমন্ত্রী অধ্যক্ষ মতিউর রহমান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার জি এম সালেহ উদ্দিন, ময়মনসিংহ রেঞ্জের ডিআইজি চৌধুরী আব্দুল্লাহ আল মামুন, জেলা প্রশাসক মুস্তাকীম বিল্লাহ ফারুকী প্রমুখ। এ ছাড়া বাংলাদেশ যুব ইউনিয়ন শহরের পাটগুদাম সেতু থেকে টাউন হল মাঠ পর্যন্ত ব্যতিক্রমী এক হাঁটা প্রতিযোগিতার আয়োজন করে।

ফরিদপুর : স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার খন্দকার মোশারফ হোসেনের পক্ষে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানান জেলা প্রশাসক সরদার সরাফত আলী, পুলিশ সুপার মো. জামিল হাসান ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান খন্দকার মোহতেশাম হোসেন বাবর।

পরে জেলা প্রশাসকের নেতৃত্বে শোভাযাত্রা বের হয়। শোভাযাত্রাটি প্রধান প্রধান সড়ক ঘুরে শেখ জামাল স্টেডিয়ামে গিয়ে শেষ হয়।

নওগাঁ : নওগাঁ স্টেডিয়ামে উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি জেলা প্রশাসক ড. আমিনুর রহমান ও বিশেষ অতিথি পুলিশ সুপার মোজাম্মেল হক। এর আগে তাঁরা শহরের মুক্তির মোড়ে কেন্দ্রীয় শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক দেন। পরে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য মুক্তিযোদ্ধা আবদুল মালেক, সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সংসদ সদস্য বাবু সাধন চন্দ্র মজুমদার, এ কে এম ফজলে রাব্বীসহ বিভিন্ন সংগঠন ফুল দেয়।

ঝালকাঠি : সকালে জেলা প্রশাসক মো. মিজানুল হক চৌধুরী ও পুলিশ সুপার সুভাষ চন্দ্র সাহা স্থানীয় পুরনো স্টেডিয়ামে জাতীয় পতাকা উত্তোলন এবং কুচকাওয়াজে সালাম নেন।

মেহেরপুর : সকালে মেহেরপুর সরকারি কলেজ মোড়ে শহীদ স্মৃতিসৌধে স্থানীয় সংসদ সদস্য ফরহাদ হোসেন দোদুল, সাবেক সংসদ সদস্য জয়নাল আবেদিন, জেলা প্রশাসক মো. শফিকুল ইসলাম, পুলিশ সুপার মো. হামিদুল আলম, জেলা পরিষদের প্রশাসক মিয়াজান আলী, পৌর মেয়র মোতাছিম বিল্লাহ মতু, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বশির আহমেদ, পাবলিক প্রসিকিউটর পল্লব ভট্টাচার্যসহ বিভিন্ন ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান পুষ্পস্তবক দেয়।

কুষ্টিয়া : যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সম্পন্ন ও জামায়াতের রাজনীতি নিষিদ্ধের দাবি জানানোর মধ্য দিয়ে দিবসটির শুরু হয়। পরে কালেক্টরেট চত্বরে কেন্দ্রীয় স্মৃতিস্তম্ভে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে পুষ্পস্তবক দেন জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন ও পুলিশ সুপার প্রলয় চিসিম।

কুড়িগ্রাম : তারামন বিবি (বীরপ্রতীক), আবু হাফিজ, হারুন-অর-রশীদ, সমশের আলী, আবদুল হাফিজ সরকার, ফরিদ উদ্দিন, আবদুল কাদের, নুরুজ্জামান, বেলাল হোসেন, আবুল হোসেন, হাবিবুল্লা মিয়া, আইয়ুব আলী সরকার, রহিম উদ্দিন সরকার, ফজল উদ্দিন, এ কে এম ফজলুল হক সরকার, আইনুল হক মোল্লা, দেলওয়ার আহম্মেদ, আবদুল আউয়াল, আবদুল কুদ্দুস, ওয়ারেছ উদ্দিন, আবদুল মালেক, রফিকুল ইসলাম, মনির উদ্দিন সরকার, নুরুল ইসলাম, শাহজান আলী, আবদুল কাদের মণ্ডল—এই ২৬ জন মুক্তিযোদ্ধাকে সম্মাননা দেওয়া হয়েছে।  

মাগুরা : সকালে সরকারি বালক উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে কুচকাওয়াজে সালাম নেন জেলা প্রশাসক মাহাবুবর রহমান ও পুলিশ সুপার এ কে এম এহসান উল্লাহ। পৌর মেয়র খুরশিদ হায়দার টুটুল, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খান, সাধারণ সম্পাদক পঙ্কজ কুণ্ডুসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।

শেরপুর : দুপুরে জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে স্থানীয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ পরিবারকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সকালে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি স্টেডিয়াম মাঠে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন জেলা প্রশাসক ডা. এ এম পারভেজ রহিম।

বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় : বিশ্ববিদ্যালয় স্টেডিয়ামে কুচকাওয়াজ ও শারীরিক কসরত প্রদর্শনী হয় সকালে। পরে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আলী আকবর বিশ্ববিদ্যালয়ের মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতিস্তম্ভে পুষ্পস্তবক দেন। একে একে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি, মহিলা ক্লাব, অফিসার সমিতি, কর্মচারী সমিতি, কর্মচারী ইউনিয়নসহ বিভিন্ন সংগঠন সেখানে ফুল দেয়। দুপুরে শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও শান্তি কামনা করে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব মসজিদ ও উপাসনালয়ে বিশেষ মোনাজাত এবং প্রার্থনা করা হয়। এ ছাড়াও দিবসটি উপলক্ষে বাকৃবি ফটোগ্রাফিক সোসাইটির আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিল্পাচার্য জয়নুল আবেদিন মিলনায়তনসংলগ্ন মুক্তমঞ্চে মুক্তিযুদ্ধের দুর্লভ ছবি নিয়ে ‘ফ্রেমে ফ্রেমে একাত্তর’ শীর্ষক দিনব্যাপী আলোকচিত্র প্রদর্শনী হয়েছে।

গোপালগঞ্জ : জেলা প্রশাসন ও জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে দিবসের প্রথম প্রহরে টুঙ্গিপাড়ায় জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৗধে পুষ্পস্তবক দিয়ে শ্রদ্ধা জানানো হয়। পরে স্থানীয় স্বাধীনতা ও বিজয় স্মৃতিস্তম্ভে বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠন ও শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে ফুল দেওয়া হয়। এ ছাড়া মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স মিলনায়তনে শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যদের সংবর্ধনা ও মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণা করা হয়েছে।

নেত্রকোনা : নেত্রকোনার কলমাকান্দা উপজেলা প্রশাসন আয়োজিত মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবসের কর্মসূচিতে গতকাল শনিবার উপজেলা আওয়ামী লীগের একাংশ বাধা দিয়েছে। কলমাকান্দা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহ মো. ফখরুল ইসলাম ফিরোজ জানান, প্রতিবছরের মতো গতকাল উপজেলা স্টেডিয়াম মাঠে মহান স্বাধীনতা দিবসে কর্মসূচির আয়োজন করে প্রশাসন। সকালে উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি দলীয় কার্যালয় থেকে মাইকিং করে স্বাধীনতা দিবসের সরকারি কর্মসূচি বর্জনের ঘোষণা দেন। অনুষ্ঠান শুরু হলে একদল যুবক স্টেডিয়াম মাঠে প্রবেশ করে। তারা বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে আসা শিক্ষক, শিক্ষিকাসহ কুচকাওয়াজে অংশগ্রহণ করতে আসা শিশু-কিশোরদের মাঠ থেকে বের করে দেয়।

নাটোর : সিংড়া উপজেলা মাঠে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। পরে তিনি কুচকাওয়াজ দেখেন। অন্যদিকে জেলা শহরের মাদ্রাসা মোড়ে স্বাধীনতা স্মৃতিস্তম্ভে আওয়ামী লীগের স্থানীয় সংসদ সদস্য শফিকুল ইসলাম শিমুলের নেতৃত্বে দলের নেতাকর্মীরা পুষ্পস্তবক দেয়।

নড়াইল : দিবসটি উপলক্ষে আয়োজিত নানা অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মো. হেলাল মাহমুদ শরীফ, জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. আবুল বাসার মুন্সী, পুলিশ সুপার সরদার রকিবুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. সিদ্দিকুর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সুবাস চন্দ্র বোস প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

সিরাজগঞ্জ : কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে ফুল দিয়ে প্রথমে জেলা প্রশাসক বিল্লাল হোসেন এবং পরে পুলিশ সুপার মিরাজ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মন্ত্রী আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, স্থানীয় সংসদ সদস্য ডা. হাবিবে মিল্লাত মুন্না, সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য সেলিনা বেগম স্বপ্না শ্রদ্ধা জানান।  

সাতক্ষীরা : জেলা আওয়ামী লীগের উদ্যোগে সকালে শহীদ আব্দুর রাজ্জাক পার্ক থেকে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়। এতে নেতৃত্ব দেন স্থানীয় সংসদ সদস্য মীর মোস্তাক আহমেদ রবি ও সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য রিফাত আমিন।

মাদারীপুর : জেলা মুক্তিযোদ্ধাদের নেতৃত্বে একটি বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের হয়ে বিভিন্ন স্থান ঘুরে স্থানীয় আচমত আলী খান স্টেডিয়ামে গিয়ে শেষ হয়।

গাইবান্ধা : দিবসটি উপলক্ষে গতকাল গাইবান্ধা পৌরসভা একাদশ ও জেলা প্রশাসন একাদশের মধ্যে স্টেডিয়ামে প্রীতি ফুটবল ও নারীদের ক্রীড়ানুষ্ঠান এবং জেলা শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে ‘সুখী-সমৃদ্ধ ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে ডিজিটাল প্রযুক্তির সর্বজনীন ব্যবহার’ শীর্ষক আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়েছে।


মন্তব্য