kalerkantho

শনিবার । ২১ জানুয়ারি ২০১৭ । ৮ মাঘ ১৪২৩। ২২ রবিউস সানি ১৪৩৮।


সন্ত্রাসের প্রতিবাদে শহরবাসী রাস্তায়

রাঙামাটি প্রতিনিধি   

২৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



‘পাহাড়ে শান্তির জন্য হয়েছে পার্বত্য চুক্তি, অবৈধ অস্ত্রগুলোও জমা নেওয়া হয়েছে, তবে এখনো কেন হত্যা-খুন-অপহরণ-চাঁদাবাজি চলছে, এখন আবার অবৈধ অস্ত্র কোথা থেকে এলো? আজ থেকে আর কেউ চাঁদা দেবেন না, আমরা দেখতে চাই সন্ত্রাসীদের শক্তি বেশি নাকি জনগণের। ’ গতকাল বৃহস্পতিবার রাঙামাটিতে অনুষ্ঠিত বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের এক সমাবেশে এসব কথা বলেন বক্তারা।

পাহাড়ে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার, আঞ্চলিক দলগুলোর ফ্রি স্টাইল চাঁদাবাজি বন্ধ, আসন্ন ইউপি নির্বাচনের আগে পার্বত্য চট্টগ্রামের অবৈধ অস্ত্র উদ্ধারে চিরুনি অভিযানসহ পাঁচ দফা দাবিতে বিশাল সমাবেশ ও বিক্ষোভ করেছে ‘সচেতন পার্বত্য জনগণ’ ব্যানারে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ। সমাবেশ চলাকালে স্তব্ধ হয়ে যায় পুরো শহর। সব ধরনের যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

সকালে রাঙামাটি পৌর চত্বরে জমায়েত হয় শহরবাসী। শহরের সব ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রেখে ব্যবসায়ীরা, গাড়ি বন্ধ করে পরিবহন শ্রমিকরা, বেসরকারি বিভিন্ন অফিস বন্ধ করে চাকরিজীবীরা ওই বিক্ষোভে যোগ দেয়। সকাল ১০টার দিকে বিক্ষোভ মিছিলটি পৌর চত্বর থেকে শুরু হয়ে নিউ মার্কেট চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। সেখানে অনুষ্ঠিত সমাবেশে পার্বত্য চট্টগ্রাম হেডম্যান অ্যাসোসিয়েশেনের সভাপতি চিংকিউ রোয়াজার সভাপতিত্বে বক্তব্য দেন সাবেক পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী দীপঙ্কর তালুকদার, সাবেক জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নিখিল কুমার চাকমা, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য ফিরোজা বেগম চিনু, কাপ্তাই উপজেলার সাবেক চেয়ারম্যান অংসুচাইন চৌধুরী, হেলালউদ্দিন, তাপস দে, শহীদুজ্জামান মহসিন রোমান,  মো. ইকবাল।


মন্তব্য