kalerkantho


ফেনীতে ক্যাডেট ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ বাথরুমে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মা-ছেলের রহস্যময় মৃত্যু

ফেনী প্রতিনিধি   

২৩ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



ফেনী গার্লস ক্যাডেট কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী লামিয়া তাবাসসুম তুবার (১৪) ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। গতকাল মঙ্গলবার সকালে ফেনী মডেল থানা পুলিশ কলেজের খাদিজা হাউসের বাথরুম থেকে লাশটি উদ্ধার করে।

তুবা কুমিল্লা ক্যাডেট কলেজের শিক্ষক সাইফুল আলম ও গৃহবধূ নাদিয়া ইয়াসমিনের দ্বিতীয় সন্তান। কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার সাত পুকুরিয়ায় তাদের বাড়ি।

কলেজ সূত্র জানায়, গতকাল ভোরে হোস্টেলের অন্য ছাত্রীরা তাকে বিছানায় না দেখে খোঁজাখুঁজি শুরু করে। এদিকে হোস্টেলের একটি বাথরুম দীর্ঘ সময় বন্ধ থাকায় কলেজ কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানায় তারা। বাথরুমের দরজা ভেঙে তুবার ঝুলন্ত দেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয় কলেজ কর্তৃপক্ষ। পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠায়।

কলেজ অধ্যক্ষ জাহানারা চৌধুরী বলেন, ‘কী কারণে মেয়েটি আত্মহত্যা করেছে বিষয়টি এখনো নিশ্চিত হওয়া যায়নি। ’ তবে তিনি খোঁজখবর নিচ্ছেন।

ফেনী সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. অসীম কুমার সাহা বলেন, ‘এটি আত্মহত্যা। ময়নাতদন্ত শেষে লাশ পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে। রাত আড়াইটা থেকে ৩টার মধ্যে ঘটনাটি ঘটে। ’

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করা ফেনী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. সাইফুল ইসলাম বলেন, ‘মেয়েটির বাঁ হাতে কলম দিয়ে সুইসাইড নোটে লেখা ছিল, আই উইল ডাই। ’

এদিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি জানান, সদর উপজেলার দারমা গ্রাম থেকে গতকাল মঙ্গলবার দুপুরে মা ও ছেলের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। মৃতরা হলো একই গ্রামের মো. হোসেন মিয়ার স্ত্রী দোলোয়ারা বেগম ও তাঁর ছেলে ইনামুল হক। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান মো. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘মা-ছেলে বাড়ির পাশের একটি জমিতে পড়ে থাকা তারে জড়িয়ে মারা গেছে বলে জানতে পেরেছি। ’ এদিকে সদর থানার ওসি মো. মাঈনুর রহমান জানান, মা-ছেলের মৃত্যু নিয়ে রহস্যের সৃষ্টি হয়েছে। তারা কিভাবে মারা গেছে এলাকার লোকজন কেউ নিশ্চিত করে কিছু বলতে পারছে না। ছেলেটি বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে মারা যেতে পারে বলে আলামত পাওয়া গেছে। লাশ দুটি ময়নাতদন্তের জন্য ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি জানান, ছাতক উপজেলায় কদর মিয়া নামের এক কৃষকের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে উপজেলার কুরশি চাইলার বিল থেকে লাশটি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে তা ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।


মন্তব্য