kalerkantho

বুধবার । ১৮ জানুয়ারি ২০১৭ । ৫ মাঘ ১৪২৩। ১৯ রবিউস সানি ১৪৩৮।

দায় স্বীকার

নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধি   

২২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার আটজনের মধ্যে আরো একজন আদালতে দোষ স্বীকার করে জবানবন্দি দিয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সাইদুজ্জামান শরীফের আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করে জুয়েল।

একই আদালতে গ্রেপ্তার হূদয়কে সাত দিনের রিমান্ড চেয়ে হাজির করা হলে দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর হয়। এর আগে গত শনিবার আদালতে বাবু ও মনির হোসেন এবং গত রবিবার তানভীর স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেয়। রঘুনাথপুরে স্কুল ছাত্রী মেয়েকে তুলে নিতে বাধা দেওয়ায় বাবা খুনের পর পুলিশ তাদের আটক করে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ফতুল্লা মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আব্দুর রাজ্জাক বলেন, ‘গত ১৬ মার্চ ভোরে রঘুনাথপুরে ঝর্না রানীকে উঠিয়ে নেওয়ার সময় বাধা দেন বাবা মনিন্দ্র। এ কারণে তাঁকে খুন করা হয়। ঘটনাস্থল থেকে আটক কথিত প্রেমিকের আট সহযোগীকে আটক করা হয়। নিহতের স্ত্রী প্রজাপতি রানী

মামলায় যে ১০ জনকে আসামি করেছিলেন এর মধ্যে প্রধান আসামি কথিত প্রেমিক তুহিন ও সবুজ পলাতক রয়েছে। ’


মন্তব্য