kalerkantho

লালন স্মরণোৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুষ্টিয়া   

২২ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কুষ্টিয়া শহরতলির ছেঁউড়িয়ায় বাউলসম্রাট ফকির লালন শাহর আখড়ায় কাল বুধবার রাতে শুরু হচ্ছে তিন দিনের লালন স্মরণোৎসব ও বাউল মেলা। এ উৎসব উপলক্ষে ইতিমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করা হয়েছে।

দূর-দূরান্ত থেকে লালনভক্তরা উৎসব প্রাঙ্গণে আসতে শুরু করেছে। সর্বত্র পড়েছে সাজ সাজ রব। এবারের দোল পূর্ণিমার এ উৎসবে দেশ-বিদেশের রেকর্ডসংখ্যক লোকসমাগম ঘটবে বলে আশা করছেন আয়োজকরা। এ কারণে প্রশাসনের পক্ষ থেকেও নেওয়া হয়েছে নজিরবিহীন নিরাপত্তাব্যবস্থা। লালন একাডেমির সভাপতি ও কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক সৈয়দ বেলাল হোসেন জানান, প্রতিবারের মতো এবারও লালন একাডেমির আয়োজনে ও সংস্কৃতিবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সহযোগিতায় এই আয়োজন ঘিরে পুরো আখড়াবাড়িকে ঢেলে সাজানো হয়েছে। ইতিমধ্যে ভক্তদের ভিড়ে উৎসবমুখর হয়ে উঠেছে ছেঁউড়িয়ার আখড়াবাড়ি। লালন একাডেমির বিশাল মাঠে বসেছে নানা পণ্যের দুই শতাধিক স্টল। আয়োজকরা জানান, ১৮৯০ সালের ১৬ অক্টোবর লালন শাহ কুষ্টিয়া শহর-সংলগ্ন কুমারখালীর চাপড়া ইউনিয়নের ছেঁউড়িয়ায় মারা যান। জীবদ্দশায় তিনি দোল পূর্ণিমার রাতে শিষ্য ও ভক্তদের নিয়ে উৎসব পালন করতেন। এরই ধারাবাহিকতায় লালনের মৃত্যুর পর থেকেই এই স্মরণোৎসব পালিত হয়ে আসছে।


মন্তব্য