kalerkantho

সোমবার । ১৬ জানুয়ারি ২০১৭ । ৩ মাঘ ১৪২৩। ১৭ রবিউস সানি ১৪৩৮।


কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা

নির্মলেন্দু চক্রবর্তী শংকর, ফরিদপুর   

২১ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কিছু বিচ্ছিন্ন ঘটনা

ফরিদপুরের ভাঙ্গা পৌরসভা নির্বাচনে গতকাল রবিবার দু-একটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়েছে।

এ নির্বাচনে মেয়র পদে পাঁচজন, ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩ জন এবং তিনটি সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর পদে ১১ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। গতকাল সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত ওই পৌরসভার ১৫টি কেন্দ্র ঘুরে ভোটারদের শান্তিপূর্ণ পরিবেশে ভোট দিতে দেখা গেছে। দুটি কেন্দ্রে সামান্য অনিয়ম চোখে পড়েছে।

সকাল সাড়ে ১১টার দিকে চৌধুরীকান্দা সদরদী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের একটি বুথে দায়িত্বরত নৌকার এজেন্ট শেফালী বেগম অভিযোগ করেন, ‘বুথের গোপন কক্ষে (সিল মারার জায়গা) তিন চারজন ভোটার একসঙ্গে ভোট দিচ্ছেন। অভিযোগ করেও প্রতিকার পাওয়া যায়নি। ’

দুপুর ১২টার দিকে ২ নম্বর মডেল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের একটি বুথে গিয়ে দেখা যায়, পোলিং এজেন্টদের চোখের সামনে এক ভোটার আরেক ভোটারের ব্যালট পেপার নিয়ে কিভাবে ভাঁজ দিতে হবে তা দেখিয়ে দিচ্ছেন। এ ব্যাপারে ওই বুথের পোলিং এজেন্টদের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে তাঁরা কোনো সদুত্তর দিতে পারেননি।

বিকেল ৪টা পর্যন্ত নির্বাচনে অনিয়ম হয়েছে—এ জাতীয় কোনো অভিযোগ কোনো চেয়ারম্যান প্রার্থীর কাছ থেকে পাওয়া যায়নি। নির্বাচনের সময় প্রতিটি কেন্দ্র পুলিশ ও আনসার সদস্যদের মোতায়েন থাকতে দেখা গেছে। টহল দিতে দেখা গেছে র‌্যাব ও বিজিবি সদস্যদের।

জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা (ভাঙ্গা পৌর নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার) ফরিদুল ইসলাম বলেন, ‘নির্বাচনে ৭০ শতাংশের বেশি ভোটার ভোট দিয়েছেন। ’

 


মন্তব্য