kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ১৯ জানুয়ারি ২০১৭ । ৬ মাঘ ১৪২৩। ২০ রবিউস সানি ১৪৩৮।


কুমিল্লায় দুজনকে পিটিয়ে হত্যা

নিজস্ব প্রতিবেদক, কুমিল্লা   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কুমিল্লার চান্দিনায় চোর সন্দেহে শাহ আলম (২৫) নামের এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। আর চৌদ্দগ্রামে যাত্রীর ছুরিকাঘাতে মানিক মিয়া (২৫) নামের এক সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক খুন হয়েছেন। চান্দিনার ঘটনা গতকাল শুক্রবার ভোরের, আর চৌদ্দগ্রামেরটি ঘটে বৃহস্পতিবার রাতে।

চান্দিনা উপজেলার ধেরেরা গ্রামে চোর সন্দেহে পিটিয়ে হত্যা করা দুই সন্তানের জনক শাহ আলম ওই গ্রামের শহিদ উল্লার ছেলে। এ সময় ছেলেকে বাঁচাতে গিয়ে আহত হন ফিরোজা বেগম।

নিহতের স্ত্রী মনি আক্তার বলেন, ‘ফজরের আজানের পর আমরা ঘুম থেকে উঠি। আমি গৃহস্থালির কাজ শুরু করি আর তিনি (শাহ আলম) বাড়ি থেকে বের হয়ে যান। কিছুক্ষণ পর লোক মারফত জানতে পারি, তাঁকে পাশের বাশার মিয়ার বাড়িতে বেঁধে রাখা হয়েছে। খবর পেয়ে আমরা সেখানে গিয়ে দেখি, ছয়-সাতজন তাঁকে মারধর করছে। এ সময় আমার শাশুড়ি এগিয়ে গেলে তাঁকেও মারধর করে। তারা আমার স্বামীকে পিটিয়ে মেরে ফেলে। ’

এ ব্যাপারে চান্দিনা থানার ওসি রসুল আহমদ নিজামী জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে নিহতের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি। তবে নিহত ব্যক্তির রেকর্ড ভালো নয়। তাঁর বিরুদ্ধে সিঁধেল চুরিসহ নানা অভিযোগ রয়েছে।

এদিকে কুমিল্লার চৌদ্দগ্রামে সিএনজিচালিত অটোরিকশাচালক মানিক মিয়াকে বৃহস্পতিবার রাত ৮টার দিকে উপজেলার শুভপুর ইউনিয়নের হাজারীপাড়া গ্রামে যাত্রীরা হত্যা করে। মানিক ওই গ্রামের মনতাজ মিয়ার ছেলে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় মুন্সিরহাট বাজার থেকে হাজারীপাড়া গ্রামে যাওয়ার কথা বলে মানিকের সিএনজিচালিত অটোরিকশায় ওঠেন একই গ্রামের তারেক ও আবদুর রাজ্জাক। একপর্যায়ে তাঁদের মধ্যে ভাড়া নিয়ে বাগিবতণ্ডা হয়। এ সময় যাত্রীরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাঁকে কুপিয়ে জখম করেন।


মন্তব্য