kalerkantho


রাজীবপুরে বৃদ্ধকে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা

রৌমারী (কুড়িগ্রাম) প্রতিনিধি   

১৯ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



কুড়িগ্রামের রাজীবপুর উপজেলার চরাঞ্চলে আব্দুল লতিফ (৬৫) নামের এক বৃদ্ধকে আগুনে পুড়িয়ে মারার চেষ্টা হয়েছে। আগুনে তাঁর শরীরের ৪০ শতাংশ ঝলসে গেছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য দ্রুত ঢাকায় নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন চিকিৎসকরা। জমি নিয়ে বিরোধে চরসাজাই মণ্ডলপাড়া গ্রামে গত বৃহস্পতিবার দুপরে পাশের ডাটিয়ার চরের প্রতিপক্ষ ওই মর্মান্তিক ঘটনা ঘটায় বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

আব্দুল লতিফের ছেলে গোলজার হোসেন অভিযোগ করে বলেন, ‘ক্ষেতের ফসল মাড়াইকাজের জন্য আমাদের জমিতে দুটি ঘর আছে। তার এক ঘরে শুয়ে ছিলেন আমার পিতা। ঘরে মাড়াই করা ২০-২৫ মণ গমও ছিল। ভরদুপুরে যখন চারপাশে কোনো লোকজন ছিল না, তখন আমাদের বিরোধীপক্ষ (ডাটিয়ার চরের) বাহাজ মণ্ডলের লোকজন গিয়ে দরজা বাইর থেকে বন্ধ করে ঘরে আগুন লাগিয়ে দেয়। ঘরে গমের খড় থাকায় মুহৃর্তের মধ্যে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। বাঁচার জন্য বেড়া ভেঙে বের হওয়ার চেষ্টা করেন আমার বাবা। তখন আগুনে বাবার মুখমণ্ডল, হাত ও পিঠ ঝলসে যায়।

পরে তাঁকে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ’

হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আব্দুল লতিফ বলেন, ‘আমি একটু অসুস্থ। দুপুরবেলা ঘরে শুয়ে আছি। এমন সময় বাহাজ মণ্ডলের ছেলে আখতার হোসেন (৩০) ও তার ভাতিজা শাহাদত হোসেন ঘরে ঢোকে। পরে বাইরে বের হয়ে দরজা বন্ধ করে আগুন লাগিয়ে চলে যায়। আমি অনেক চিৎকার করেছি। ’

অভিযোগ প্রসঙ্গে মোবাইল ফোনে জানতে চাইলে বাহাজ মণ্ডল বলেন, ‘ওদের সঙ্গে জমিসংক্রান্ত বিরোধ রয়েছে, এটা ঠিক। কিন্তু আগুনে পুড়িয়ে মানুষ হত্যার মতো জঘন্য ঘটনার সঙ্গে আমরা জড়িত নই। কিভাবে আগুন ধরেছে তারাই ভালো বলতে পারবে। ’

রাজীবপুর থানার ওসি প্রীতুষ কুমার বলেন, ‘এ ব্যাপারে থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। খোঁজ নিয়ে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ’


মন্তব্য