kalerkantho


বাল্যবিয়ে : বরের জেল

নড়িয়ার ইউএনও অবরুদ্ধ

শরীয়তপুর প্রতিনিধি   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



শরীয়তপুরের নড়িয়ায় বাল্যবিয়ে আয়োজনের অপরাধে দুই ব্যক্তিকে কারাদণ্ড দেওয়ায় ইউএনওকে অবরুদ্ধ করে রাখে বরের আত্মীয়স্বজনরা। পরে পুলিশ গিয়ে তাঁকে উদ্ধার করে। ঘটনাটি ঘটেছে গত বুধবার সন্ধ্যায়।

এক মাস করে কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন বর মনির খান (৩০) ও তাঁর বন্ধু রনি মোল্যা (৩১)। তাঁদের বাড়ি নড়িয়ার নলতা গ্রামে।

নড়িয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার (ইউএনও) কার্যালয় সূত্র জানায়, নড়িয়ার অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীর (১৪) বিয়ে ঠিক হয় নলতা গ্রামের মমিন খানের ছেলে মনির খানের সঙ্গে। বুধবার ছিল বিয়ের দিন। দুপুরে কনের বাড়িতে যায় বরপক্ষ। বরযাত্রীদের আপ্যায়ন পর্বও শেষ হয়। খবর পেয়ে ইউএনও মোহাম্মদ সামচুল হক কনের বাড়িতে উপস্থিত হন। এ সময় বাল্যবিয়ে আয়োজনের অপরাধে বর মনির খানকে ও সরকারি দায়িত্ব পালনে বাধা দেওয়ার অপরাধে মনিরের বন্ধু রনি মোল্যাকে এক মাস করে কারাদণ্ড দেন ইউএনওর ভ্রাম্যমাণ আদালত। এর প্রতিবাদে বরের আত্মীয়স্বজনরা ইউএনওকে অবরুদ্ধ করে রাখে। পরে নড়িয়া থানা ও শরীয়তপুর পুলিশ লাইনের পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে সন্ধ্যার দিকে ইউএনওকে উদ্ধার করে।

নড়িয়া থানার ওসি একরাম আলী মিয়া বলেন, বরকে সাজা দেওয়ায় বিয়েবাড়ির মানুষ উত্তেজিত হয়ে ইউএনওকে অবরুদ্ধ করেছিল। দণ্ডিতদের বুধবার রাতে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য