kalerkantho


ঠিকাদারকে প্রকাশ্যে কোপ ও পিটুনি

রাজবাড়ী প্রতিনিধি   

১৮ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



রাজবাড়ীর পাংশা উপজেলার ঠিকাদার তপন কুমার রায়কে (৫০) গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে প্রকাশ্যে কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করেছে একটি চক্র। তিনি পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ। সিন্ডিকেটের নির্দেশ উপেক্ষা করে দরপত্র দাখিল করায় পাংশা বাজারের কালিবাড়ী মোড়ে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাঁর ওপর এ হামলা হয়েছে।

তপন কুমার রায় জানান, পাংশায় ঠিকাদারি কাজের একটি শক্তিশালী সিন্ডিকেট রয়েছে। তিনি ও উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ইদ্রিস মণ্ডল এক সঙ্গে ঠিকাদারি ব্যবসা করেন। কয়েক দিন আগে তাঁরা ওই সিন্ডিকেটের নির্দেশ উপেক্ষা করে রাজবাড়ীতে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগে (এলজিইডি) দরপত্র দাখিল করেন। তাঁরা চার ভাগে পৌনে দুই কোটি টাকার কাজ পান। এতে ওই সিন্ডিকেটের সদস্যরা তাঁর ওপর ক্ষুব্ধ হয়। গতকাল সকাল ১১টার দিকে তিনি পাংশা বাজারের কালিবাড়ী মোড়ে এলে পরিকল্পিতভাবে ৮-১০ জন দুর্বৃত্ত ধারালো অস্ত্র ও লাঠিসোঁটা নিয়ে তাঁর ওপর হামলা চালায়। এতে তাঁর মাথা ও পা কুপিয়ে জখম করার পাশাপাশি পুরো শরীর পিটিয়ে ক্ষতের সৃষ্টি করা হয়। তাঁর চিৎকারে স্থানীয়রা এগিয়ে এলে দুর্বৃত্তরা পালিয়ে যায়। তাঁকে সে সময় পাংশা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। তাঁর মাথায় ১০টি ও পায়ে আটটি সেলাই দেওয়া হয়েছে। তিনি পাংশা পৌর দত্তপাড়ার নারায়ণ রায়ের ছেলে। তাঁর পাংশা বাজারের তন্নী ফ্যাশন নামের একটি কাপড়ের দোকান রয়েছে। ঘটনার পর ওই বাজারের ব্যবসায়ীরা দোকান বন্ধ রেখে প্রতিবাদ জানিয়েছেন।

ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে পাংশা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ফরিদ হাসান ওদুদ বলেন, ‘এ ঘটনায় পাংশা থানায় মামলার প্রস্তুতি চলছে। ’

পাংশা থানার ওসি আবু সামা মো. ইকবাল হায়াৎ বলেন, ‘মারধর করার কথা শুনেছি। তবে গতকাল বিকেল পর্যন্ত মামলা হয়নি। ’


মন্তব্য