kalerkantho

আত্মহনন

কালিয়াকৈর (গাজীপুর) প্রতিনিধি   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গাজীপুরের কালিয়াকৈরে ট্রেনের নিচে ঝাঁপিয়ে পড়ে এক যুবক আত্মহত্যা করেছে। স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে গতকাল বুধবার ভোরে উপজেলার হিজলতলী এলাকায় চলন্ত ট্রেনের নিচে ঝাঁপ দেন তিনি। নিহতের পরিবারসহ সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার লতিফপুর এলাকার জাকির হোসেনের বাড়িতে ভাড়া থেকে এলাকায় তিতাস গ্যাস পাইপলাইন মেরামতের কাজ করতেন জীবন মিয়া। তিনি নাটোরের সদর উপজেলার সাতনি এলাকার লিটন মিয়ার ছেলে। নিজের গ্রামেরই এক গৃহবধূর সঙ্গে তাঁর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। দুই-তিন মাস আগে তাঁরা বিয়ে করে ওই এলাকায় বাসা ভাড়া নিয়ে থাকতেন। কিন্তু কয়েক দিনের মধ্যেই পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। এর জের ধরে তিন দিন আগে তাঁর স্ত্রী বাবার বাড়ি চলে যান। বিষয়টি মেনে নিতে না পেরে স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করে গতকাল বুধবার ভোরে ঢাকা-রাজশাহী রেললাইনের উপজেলার হিজলতলী এলাকায় ঢাকাগামী ধূমকেতু এক্সপ্রেস ট্রেনের নিচে ঝাঁপিয়ে পড়েন তিনি। তাতে তাত্ক্ষণিকভাবে তাঁর মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে জয়দেবপুর রেলওয়ে পুলিশ গতকাল বুধবার সকালে গিয়ে নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। নিহতের ফুফা ইনতাজ আলী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, স্ত্রীর সঙ্গে অভিমান করেই সে আত্মহত্যা করেছে। জয়দেবপুর রেলওয়ে পুলিশের এএসআই দাদন মিয়া বলেন, নিহতের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।


মন্তব্য