kalerkantho


দায় স্বীকার করে জবানবন্দি

ভাশুরের ওপর প্রতিশোধ নিতেই পারভীনকে হত্যা

চট্টগ্রাম অফিস   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



প্রবাসী আব্দুস শুক্কুরের ওপর প্রতিশোধ নিতেই তাঁর ছোট ভাই নূরুল আলমের স্ত্রী পারভীন আক্তারকে হত্যা করে খুনিরা। আব্দুস শুক্কুরের ওপর প্রতিশোধ নিতে প্রথমে নূরুল আলমের একমাত্র ছেলে নুর মোহাম্মদ সাঈদকে অপহরণের পরিকল্পনা করা হয়েছিল।

এতে সফল না হয়ে অন্য পরিকল্পনা আঁটে তারা। কিন্তু এই পরিকল্পনা বাস্তবায়নে টাকার প্রয়োজন হয়েছিল। আর টাকা জোগাড় করতেই খুনির দল সেই নূরুল আলমের বাসায় হানা দেয় ডাকাতি করতে। আর ডাকাতির সময় মারা যান নূরুল আলমের স্ত্রী।

গত ৫ মার্চ চট্টগ্রামের বায়েজিদ বোস্তামী থানার রৌফাবাদ বাংলাদেশ কো-অপারেটিভ সোসাইটির নূরুল আলমের বাসায় এই ঘটনা ঘটে। ঘটনার পর দুবাই থেকে স্বামী নূরুল আলম ফিরে এসে অজ্ঞাতনামা আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা ও ডাকাতির মামলা করেন।  

ঘটনার দুই সপ্তাহের মধ্যে হত্যাকাণ্ডে জড়িত দুজনকে গ্রেপ্তার করে গতকাল বুধবার মহানগর হাকিম নররীণ আক্তার কাকনের আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ। এই সময় দুই আসামি ফটিকছড়ির মৃত মো. নূরুল ইসলামের ছেলে মো. ইয়াছিন এবং হাটহাজারী থানার পূর্ব মেখল গ্রামের মো. মুছার ছেলে মো. মনছুর ১৬৪ ধারায় খুন ও ডাকাতির দায় স্বীকার করে জবানবন্দি দেয়।

পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, ঘটনার মূল আসামি মো. ইয়াছিন।

নূরুল আলম ও আব্দুস শুক্কুরের দূর সম্পর্কের আত্মীয় এই ইয়াছিন। আব্দুস শুক্কুর ও নূরুল আলম দুই ভাই দুবাই প্রবাসী। তাঁরা বাড়ি তৈরির সময় মো. ইয়াছিন তাঁদের বাড়িতে দারোয়ানের কাজে নিয়োজিত ছিল। টাইলসের কাজ ইয়াছিনকে না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়। ইয়াছিনকে দুবাই নিয়ে যান আব্দুস শুক্কুর। সেখানে চাকরি দিলেও প্রতি মাসের বেতন থেকে ভিসার টাকা কেটে রাখতেন। এই নিয়ে মনোমালিন্য  হলে ইয়াছিনকে পুলিশে ধরিয়ে দেন শুক্কুর।   ইয়াছিন জেল খেটে দেশে ফিরে আসেন। এরপর ইয়াছিন প্রতিশোধ নেওয়ার পরিকল্পনা করতে থাকেন। এই পরিকল্পনার কথা বন্ধু মনছুর, ইসহাক ও রানাকে জানান। টাকার প্রয়োজনে নূরুল আলমের বাসায় ডাকাতির পরিকল্পনা করে।

৫ মার্চ রাত ৯টায় মনসুর, ইসহাক ও রানা ওই বাসায় প্রবেশ করেই  ইসহাক ও রানা গৃহবধু পারভীন আক্তারের কাছ থেকে আলমারির চাবি চায়। পারভীন চাবি না দিয়ে চিত্কার করার চেষ্টা করলে ইসহাক ও রানা গৃহবধূ পারভীনকে উপুড় করে মেঝেতে ফেলে হাত-পা বেঁধে ফেলে। এরপর মাথার ওপর বসে থাকে। এ সময় ঘটনাস্থলেই পারভীনের মৃত্যু হয়।


মন্তব্য