kalerkantho


খুলনায় আ. লীগের ৩৬ ‘বিদ্রোহী’ বহিষ্কার

খুলনা অফিস   

১৭ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



খুলনায় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের ৩৬ বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। গতকাল বুধবার জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক অ্যাডভোকেট ফরিদ আহমেদের পাঠানো এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, ২২ মার্চ ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে এবারই প্রথম দলীয় চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মনোনয়ন দেওয়া হয়। দলের সভানেত্রী শেখ হাসিনা এ প্রার্থী তালিকার অনুমোদন দেন। খুলনার ৬৭টি ইউনিয়নে তৃণমূলের সুপারিশ অনুযায়ী প্রার্থীদের কেন্দ্র থেকে দলীয় প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হয়। কিন্তু দলীয় সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কোনো কোনো ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা চেয়ারম্যান পদে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়েছেন। এ কারণে দলীয় শৃঙ্খলা ভঙ্গ ও কেন্দ্রীয় কমিটির সিদ্ধান্ত অমান্য করায় বিদ্রোহী প্রার্থীদের কেন্দ্রীয় নির্দেশ অনুযায়ী সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। এসব বিদ্রোহী প্রার্থীদের পক্ষে যেসব দলীয় নেতা-কর্মী প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে কাজ করছেন, তাঁদের তালিকা তৈরি করে তাঁদের বিরুদ্ধেও কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এস এম মোস্তফা রশিদী সুজা এমপি বহিষ্কারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মুজিবনগরে সাত নেতা বহিষ্কার

এদিকে মেহেরপুর প্রতিনিধি জানান, মুজিবনগরে উপজেলা যুবলীগের সহসভাপতি তৌফিকুল বারী বকুলসহ ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাত নেতাকে বহিষ্কার করা হয়েছে। গত মঙ্গলবার রাতে জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ফরহাদ হোসেন এমপি ও সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বহিষ্কৃত অন্যরা হলেন দারিয়াপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মঈনুল ইসলাম পাল, প্রচার সম্পাদক জাহিদ হাসান রাজিব, দপ্তর সম্পাদক হাফিজুর রহমান তুফান, কোষাধ্যক্ষ হাসান আল সবুজ পাল, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সাজ্জাদুল হক, শিক্ষাবিষয়ক সম্পাদক আক্তারুল ইসলাম ও সদস্য রুহুল আমিন। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, দরিয়াপুর ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) নির্বাচনে আওয়ামী লীগের সভানেত্রী শেখ হাসিনা কলিম উদ্দিনকে মনোনয়ন দিয়েছেন।


মন্তব্য