kalerkantho

সোমবার। ২৩ জানুয়ারি ২০১৭ । ১০ মাঘ ১৪২৩। ২৪ রবিউস সানি ১৪৩৮।


কোটালীপাড়ায় প্রার্থিতা টেকাতে শক্তির মহড়া

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি   

১৬ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়ার হিরণ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত দুই চেয়ারম্যান প্রার্থীরই মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় একে অপরকে দেখে নিতে উঠেপড়ে লেগেছেন। গত সোমবার ঢাকায় এক প্রার্থী অপর প্রার্থীকে পিস্তল উঁচিয়ে ধাওয়া করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে কোটালীপাড়ায় ওই দুজনের সমর্থকরা বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করছেন। এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। পরিস্থিতি সামাল দিতে এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

জানা গেছে, গতকাল মঙ্গলবার হিরণ ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এবাদুল হক মুন্সির সমর্থকরা মাঝবাড়ি-কোটালীপাড়া সড়কের হিরণ ইউনিয়ন পরিষদের সামনে মানববন্ধন ও বিক্ষোভ করছে। অন্যদিকে সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া দাঁড়িয়ার সমর্থকরা গোপালগঞ্জ-কোটালীপাড়া সড়কের মাঝবাড়ি বাসস্ট্যান্ড এলাকায় বিক্ষোভ করেছে। এ নিয়ে উভয় পক্ষে উত্তেজনা বিরাজ করছে।

হিরণ ইউনিয়ন পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান ও সাবেক উপজেলা আওয়ামী লীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া দাঁড়িয়া কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমার মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় হাইকোর্টে আপিল করি। সোমবার বিকেলে আমি ও আমার ছেলে তানভীর আহম্মেদ শুভকে নিয়ে ঢাকার দৈনিক বাংলা মোড় এলাকায় অবস্থান করছিলাম। এ সময় বর্তমান চেয়ারম্যান মুন্সি এবাদুল ইসলাম কিছু লোক নিয়ে পিস্তল উঁচিয়ে আমাকে ধাওয়া করে। আমি চলন্ত বাসে উঠে প্রাণে বেঁচে যাই। এ ব্যাপারে আমি মতিঝিল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছি। ’

অন্যদিকে বর্তমান চেয়ারম্যান এবাদুল হক মুন্সি তাঁর বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘মনোনয়নপত্র বাতিল হওয়ায় আমরা দুই প্রার্থীই হাইকোর্টে আপিল করি। আগামীকাল (আজ) আপিলের রায় ঘোষণা হবে। রায় পক্ষে নেওয়ার জন্য গোলাম কিবরিয়া এ নাটক সাজিয়েছেন। ’

গোপালগঞ্জের কোটালীপাড়া থানার ওসি আব্দুল লতিফ জানিয়েছেন, গতকাল সোমবার খবরটি কোটালীপাড়া পৌঁছানোর পর উভয় প্রার্থীর সমর্থকরা বিক্ষোভ করেছে। মঙ্গলবারও উভয় প্রার্থীর সমর্থকরা বিভিন্ন কর্মসূচি পালন করেছে। ঘটনাস্থলে গিয়ে পুলিশ উভয় গ্রুপের সমর্থকদের সরিয়ে দিয়েছে। বিষয়টি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। ওই ইউনিয়নে অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনা যাতে না ঘটে এ জন্য পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

প্রসঙ্গত, দ্বিতীয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে কোটালীপাড়ার হিরণ ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ থেকে বর্তমান চেয়ারম্যান এবাদুল হক মুন্সি ও সাবেক চেয়ারম্যান গোলাম কিবরিয়া দাঁড়িয়াকে দলীয় মনোনয়ন দেওয়া হয়। যাচাই-বাছাইয়ে উভয় প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল হয়। দুজনই হাইকোর্টে আপিল করেন।


মন্তব্য