kalerkantho


মৌলভীবাজারে বাসা ও মেহেরপুরে তেলের পাম্পে ডাকাতি

নিজস্ব প্রতিবেদক, মৌলভীবাজার ও মেহেরপুর প্রতিনিধি   

১৫ মার্চ, ২০১৬ ০০:০০



মৌলভীবাজার শহরের বনশ্রী এলাকায় সোমবার ভোরে সাবেক পৌর কমিশনার ও ব্যবসায়ী মো. ইউসুফ আলীর বাসায় দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে।

এ সময় ডাকাতদল বাসার লোকজনকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে ৪৫ ভরি স্বর্ণালংকার, চার লাখ টাকা, একটি মোটরসাইকেল, কয়েকটি মোবাইল ফোনসেটসহ মালপত্র লুট করে নেয়।

এ ব্যাপারে মো. ইউসুফ আলী জানান, ১৫-২০ জন ডাকাত ফজরের আজানের একটু আগে তাঁর ডুপ্লেক্স বাসায় হানা দেয়। নিচের একটি কক্ষে তাঁর বৃদ্ধ বাবা থাকেন। তাঁর সঙ্গে জুয়েল নামের এক যুবক থাকেন। ডাকাতরা ঘরে ঢুকে জুয়েলের পায়ে কোপ দিয়ে তাঁকে বেঁধে ফেলে। পরে তারা ওপরের তলায় উঠে অস্ত্রের মুখে সবাইকে জিম্মি করে হাত-পা বেঁধে একটি কক্ষে আটকে রেখে মালপত্র লুট করে পালিয়ে যায়।

খবর পেয়ে মৌলভীবাজার মডেল থানার ওসি আবদুস সালেক ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি বলেন. ‘ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে, এটা ঠিক। তবে ঘরের দরজা খুলে দেওয়ায় বাসার কেউ যুক্ত আছে বলে মনে হচ্ছে। একটি বেসরকারি সিকিউরিটি প্রতিষ্ঠানের সদস্য শাহজালাল মিয়া রাতে ওই বাসা পাহারার দায়িত্বে ছিল।

শাহজালাল ও জুয়েলকে আটক করা হয়েছে। ’

এদিকে মেহেরপুর-চুয়াডাঙ্গা সড়কের ইমপ্যাক্ট ফাউন্ডেশন সংলগ্ন অয়ন ফিলিং স্টেশন নামের একটি তেলের পাম্পে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। ডাকাতরা এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা লুট করেছে বলে দাবি করেছে পাম্প কর্তৃপক্ষ। সোমবার বিকেল ৫টার দিকে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। পাম্পটির মালিক মেহেরপুর-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য ও জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি জয়নাল আবেদীনের ছেলে তানভির আহমেদ।

এ ব্যাপারে পাম্পের ম্যানেজার জসিম উদ্দিন বলেন, ঘটনার সময় দুজন বিদেশি একটি প্রাইভেট কারে এসে মবিল কেনার জন্য ক্যাশ কাউন্টারে ঢোকে। এ সময় সেলফ থেকে মবিল নামানোর সময় ক্যাশে থাকা এক লাখ ৬৫ হাজার টাকা নিয়ে কিছু বুঝে ওঠার আগেই তারা পালিয়ে যায়।

মেহেরপুর সদর থানার ওসি ইকবাল বাহার চৌধুরী বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। মামলার প্রস্তুতি চলছে।


মন্তব্য